ঢাকা, শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪ | ৪ শ্রাবণ ১৪৩১
Logo
logo

ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তার ঘোষণা দিলেন ট্রুডো


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ১১ জুন, ২০২৩, ০১:০৬ পিএম

ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তার ঘোষণা দিলেন ট্রুডো

ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তার ঘোষণা দিলেন ট্রুডো

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শনিবার যুদ্ধকালীন কিয়েভে একটি অঘোষিত সফরের সময় ইউক্রেনের জন্য নতুন সামরিক সহায়তা ঘোষণা করেছেন, যার পরিমাণ ৫০০ মিলিয়ন কানাডিয়ান ডলার। কারণ ইউক্রেন রাশিয়ান বাহিনীর বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণের জন্য প্রস্তুত এবং নিয়মিত বিমান হামলার সঙ্গে লড়াই করছে।

ট্রুডো কিয়েভে একটি স্মৃতিসৌধে ইউক্রেনীয় সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন, যারা ২০১৪ সাল থেকে রাশিয়াপন্থী বাহিনীর সঙ্গে লড়াই করে নিহত হয়েছেন। এরপর তিনি আলোচনার জন্য প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে দেখা করেন।

 দক্ষিণ ইউক্রেনের রুশ নিয়ন্ত্রিত কাখোভকা বাঁধ ধ্বংসে রাশিয়ার ভূমিকার নিন্দাও করেছেন ট্রুডো।

কিয়েভ কর্তৃপক্ষের প্রকাশিত আলোচনার ভিডিওতে দেখা যায়, ইউক্রেনের নেতার পাশে বসে ট্রুডো বলছেন, ‘আমরা আপনার সঙ্গে থাকব, যতটা লাগে, যত দিন লাগে।’

ন্যাটো সদস্য কানাডায় সবচেয়ে বেশি ইউক্রেনীয় অভিবাসী রয়েছে। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার পূর্ণ মাত্রার আক্রমণের সময় দেশটি কিয়েভকে সামরিক ও আর্থিক সহায়তা সরবরাহ করেছে।

এদিন ট্রুডো একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজ, আমি ঘোষণা করতে পারি যে আমরা সামরিক সহায়তার জন্য নতুন অর্থায়নে ৫০০ মিলিয়ন (কানাডিয়ান) ডলার প্রদান করব।’ 

এদিকে ইউক্রেন যত দ্রুত সম্ভব ন্যাটো সামরিক জোটে যোগ দিতে চায়। কিন্তু জেলেনস্কি স্বীকার করেছেন যে রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধের সময় এটি ঘটতে পারে না।

আলোচনার পরে গৃহীত একটি যৌথ ঘোষণায় বলা হয়েছে, ‘কানাডা ইউক্রেনকে শর্ত সাপেক্ষে ন্যাটো সদস্য হওয়ার জন্য সমর্থন করে।

ইউক্রেন ও কানাডা ২০২৩ সালের জুলাইয়ে ভিলনিয়াসে ন্যাটো সম্মেলনে এই সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য উন্মুখ।’ 

আলোচনায় জেলেনস্কি বলেছিলেন, ইউক্রেন কানাডিয়ানদের তাদের সমর্থনের জন্য কৃতজ্ঞ। ‘আপনাদের অনেক ধন্যবাদ। কানাডার জনগণ এবং অবশ্যই সব দল, সরকার এবং সংসদকে। সত্যিই।এই সাহায্য প্রয়োজনীয় ছিল।’সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

 এনবিএস/ওডে/সি