ঢাকা, বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪ | ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
Logo
logo

৩৭ বছরে চীনে সর্বনিম্ন বিয়ের রেকর্ড, প্রভাব জন্মহারে


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ১২ জুন, ২০২৩, ০৯:০৬ পিএম

৩৭ বছরে চীনে সর্বনিম্ন বিয়ের রেকর্ড, প্রভাব জন্মহারে

 ৩৭ বছরে চীনে সর্বনিম্ন বিয়ের রেকর্ড, প্রভাব জন্মহারে

 চীনে গত বছর মাত্র ৬.৮৩ মিলিয়ন দম্পতি বিয়ে করেছেন। আগের বছরের তুলনায় সংখ্যাটি প্রায় ৮ লাখ কম। বিয়ের রেকর্ড ২০২২ সালের শেষে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে এসেছে। গত এক দশক ধরে ক্রমাগত এই ধারা অব্যাহত রয়েছে, যদিও কোভিড -১৯ লকডাউনের কঠোর নীতি বিয়ের মোট সংখ্যাকে প্রভাবিত করতে পারে।

দেশটিতে মহামারী বিধিনিষেধ অনুসরণ করে গত বছর কয়েক সপ্তাহ ধরে কয়েক মিলিয়ন মানুষ নিজেদের গৃহবন্দী রাখায় অনেক যুগলের পক্ষে বিয়ে করা সম্ভব হয়নি। চীন সরকার এখন জন্মহার এবং জনসংখ্যার হ্রাসের সাথে মোকাবেলা  করছে। ২০২২ সালে, চীনের জনসংখ্যা ছয় দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো হ্রাস পেয়েছে, এটি এমন একটি পতন যা দেশের অর্থনীতি এবং নাগরিক সংখ্যায় দীর্ঘ সময়ের পতনের সূচনা করবে।

চীনের জন্মহার গত বছর প্রতি ১,০০০ জনের মধ্যে ৬.৭৭ নেমে এসেছে, যা রেকর্ডে সর্বনিম্ন। ২০২১ সালে এটি ছিলো ৭.৫২। জনসংখ্যাবিদরা সতর্ক করেছেন যে চীন ধনী হওয়ার আগেই বুড়ো হয়ে যাবে, কারণ এর কর্মশক্তি সঙ্কুচিত হবে এবং ঋণগ্রস্ত স্থানীয় সরকারগুলিকে তাদের বয়স্ক জনসংখ্যার জন্য বেশি ব্যয় করতে হবে। বিয়েকে উৎসাহিত করতে এবং দেশে জন্মের হার বাড়ানোর জন্য চীন গত মাসে ২০ টিরও বেশি শহরে পাইলট প্রকল্প চালুর সিদ্ধান্ত নেয়।কিছু প্রদেশ নবদম্পতিকে সবেতন বিবাহ ছুটির মেয়াদ বাড়ানোর সুযোগ করে দিচ্ছে।সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

 এনবিএস/ওডে/সি