ঢাকা, শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪ | ৪ শ্রাবণ ১৪৩১
Logo
logo

আগস্ট মাসের মধ্যে অন্তত ৭৫টি ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ চলবে ভারতজুড়ে


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ১৩ জুন, ২০২৩, ০৯:০৬ পিএম

আগস্ট মাসের মধ্যে অন্তত ৭৫টি ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ চলবে ভারতজুড়ে

 আগস্ট মাসের মধ্যে অন্তত ৭৫টি ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ চলবে ভারতজুড়ে

বর্তমান সময়ে দেশটির সব থেকে আলোচিত ট্রেন হল ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’ । পাশাপাশি, যাত্রীদের কাছেও অত্যন্ত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে ট্রেনটি। ইতিমধ্যেই একের পর এক রুটে সফর শুরু করেছে এই অত্যাধুনিক সেমি হাই-স্পিড ট্রেন।

বর্তমান পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশের মোট ১৮টি রুটে যাতায়াত করছে বন্দে ভারত। এমতাবস্থায়, সরকারের লক্ষ্য হল আগামী আগস্ট মাসের মধ্যে সারাদেশে অন্তত ৭৫টি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস চালু করা।

এখনও পর্যন্ত মোট তিনটি বন্দে ভারত চলাচল করছে রাজ্যে। মূলত, চলতি বছরের শুরু থেকেই হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি রুটে সফর শুরু করেছিল রাজ্যের প্রথম ‘বন্দে ভারত এক্সপ্রেস’। তারপরে একে একে হাওড়া-পুরী এবং নিউ জলপাইগুড়ি থেকে গুয়াহাটি পর্যন্ত চলাচল শুরু করেছে আরও দু'টি ‘বন্দে ভারত’।

তবে এবার রাজ্যের একাধিক রুটে বন্দে ভারতের জন্য প্রস্তাব দেওয়া হল রেলকে। ইতিমধ্যেই এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত তথ্যও সামনে এসেছে। যেখানে প্রস্তাবিত ট্রেনগুলির রুটের বিষয়টিও উপস্থাপিত হয়েছে। ওই প্রস্তাবিত ট্রেনগুলির মধ্যে হাওড়া থেকে দু'টি ট্রেনের বিবরণও রয়েছে। সেগুলি হল হাওড়া-গয়া বন্দে ভারত এবং হাওড়া-রাঁচি বন্দে ভারত। এই ট্রেনগুলি সপ্তাহে তিন দিন চলতে পারে।

এদিকে, আসানসোল থেকে দু'টি বন্দে ভারতের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সেগুলি হল আসানসোল-বারাণসী বন্দে ভারত (সপ্তাহে চারদিন চলতে পারে) এবং আসানসোল-পুরী বন্দে ভারত (সপ্তাহে দু'দিন চলতে পারে)।

এছাড়াও, মালদা টাউন থেকে পাটনা জংশন পর্যন্ত আরও একটি বন্দে ভারতের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে রেলকে। এই ট্রেনটি সপ্তাহে ছ'দিন চলতে পারে বলেও জানা গিয়েছে। প্রত্যেকটি ট্রেনেরই গড় গতিবেগ থাকবে ৮০ কিলোমিটারের আশেপাশে।

তবে, এখানেই এই তালিকার শেষ নয়। পাশাপাশি পাঁচটি বন্দে ভারত মেট্রোর জন্যেও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে রেলকে। এমতাবস্থায় বন্দে ভারত মেট্রোর প্রস্তাবিত রুটগুলি হল আজিমগঞ্জ থেকে হাওড়া, ভাগলপুর থেকে হাওড়া, শিয়ালদহ থেকে লালগোলা, মালদা টাউন থেকে জামালপুর জংশন এবং ভাগলপুর থেকে দেওঘর। এই প্রত্যেকটি ট্রেনই সপ্তাহে ছয় দিন ধরে চলতে পারে। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

 এনবিএস/ওডে/সি