ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২২ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
Logo
logo

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে মুসলিমদের আত্মত্যাগের কথা তুলে ধরুন'


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ১৪ আগস্ট, ২০২২, ১২:০৮ পিএম

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে মুসলিমদের আত্মত্যাগের কথা তুলে ধরুন'

স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে মুসলিমদের আত্মত্যাগের কথা তুলে ধরুন'

ভারতের মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন (মিম) প্রধান ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি বলেছেন, ভারতে যদি কাউকে সবচেয়ে বেশি অপমান করা হয় তবে সে হল মুসলিম। ভারতে সবচেয়ে বেশি অসুরক্ষিত হল মুসলিমরা। সবচেয়ে বেশি উপেক্ষা করা হয় মুসলিমদের। হায়দরাবাদে এক সভায় বক্তব্য রাখার সময়ে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

ওয়াইসি বলেন, দেশে গোরক্ষকরা যে স্বাধীনতা পেয়েছে, তা দেওয়া উচিত নয়। তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করছি ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসে যখন প্রধানমন্ত্রী  লাল কেল্লা থেকে দেশবাসীকে সম্বোধন করবেন, তখন দেশের উৎপীড়িতদের কথা উল্লেখ করবেন। আমরা আশা করছি প্রধানমন্ত্রী যখন ১৫ আগস্ট জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন, তখন আল্লামা ফজলে হক খয়রাবাদী, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, হোসেইন আহমদ মদনী, মাওলানা কাফি, আশফাকউল্লাহর কথা স্মরণ করবেন। আমরা জানি না তিনি তা করবেন কী না। উনি করুন বা না করুন, আমরা তা করতে থাকব। আমদের বুজুর্গদের জন্য আমরা গর্বিত। আমাদের বুক প্রশস্ত হয়ে যায় যখন আমাদের বুজুর্গদের আত্মত্যাগের ইতিহাস পড়ে থাকি।’ 

তিনি বলেন, ইতিহাসে মুসলমানদের অবদান অন্য কারও চেয়ে কম নয়, আমাদের একসাথে স্বাধীনতা উদযাপন করতে হবে। আমাদের দেশ স্বাধীনতা পেয়েছে কিন্তু আজও দারিদ্র্য থেকে মুক্তি পায়নি। আজও দেশে কৃষকদের আয় কম।    

ওয়াইসি বলেন, আমাদের জন্য স্বাধীনতার অর্থ এটা নয় যে, গো-রক্ষকদের কিছু করার স্বাধীনতা পাওয়া উচিত। দেশে আজ যদি কেউ সবচেয়ে পিছিয়ে থাকে, তবে সে হল মুসলমান। সবাই একসাথে থাকলেই এ দেশের উন্নয়ন হবে, মানুষ সুখী হবে।

ওয়াইসি বলেন, একদিকে যখন গোটা দেশ স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপন করছে, অন্যদিকে ফ্যাসিবাদী এবং সাম্প্রদায়িক শক্তিদেশের স্বাধীনতার আন্দোলনে মুসলমানরা যে লড়াই করেছে তা শেষ করে দিতে চায়। এই শক্তিগুলো ইতিহাসকে বিকৃত করার চেষ্টা করছে যাতে হয় স্বাধীনতা সংগ্রামে মুসলমানদের ভূমিকা মুছে ফেলা যায় অথবা তা উপেক্ষা করা যায’ বলেও মন্তব্য করেন ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে