ঢাকা, বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪ | ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
Logo
logo

ওবিসি’ স্কলারশিপের টাকা আমরাই দেবো, তোমার দেওয়ার প্রয়োজন নেই: মমতা


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ১৯ জানুয়ারী, ২০২৩, ১১:০১ পিএম

ওবিসি’ স্কলারশিপের টাকা আমরাই দেবো, তোমার দেওয়ার প্রয়োজন নেই: মমতা

ওবিসি’ স্কলারশিপের টাকা আমরাই দেবো, তোমার দেওয়ার প্রয়োজন নেই: মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সরকার ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করে বলেছেন, ‘ওবিসি’ স্কলারশিপের টাকা, ৮০০ টাকা করেই আমরাই দেবো। তোমার দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ারে এক সমাবেশে বক্তব্য দেওয়ার সময়ে ওই মন্তব্য করেন। মমতা আজ বিভিন্ন ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন এবং একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাম না করে তাঁকে কটাক্ষ করেন।

মমতা অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণির (ওবিসি) জন্য স্কলারশিপ বন্ধ করে দেওয়াসহ বিভিন্ন ইস্যুতে সমালোচনা করে বলেন, ‘ওবিসিরা স্কলারশিপ পেত, কেন্দ্রীয় সরকার সেটা বন্ধ করে দিয়েছে। বন্ধ করে দিয়েছে কেন, তার মানে ‘ওবিসি’রা পাবে না? সংখ্যালঘুরা পাবে না? আমরা তো   কখনও এটা ভাবি না! আমি যদি একটা সাইকেল দিই, ব্রাহ্মণও পায়, হিন্দুও পায়, কামতাপুরিও পায়, চা বাগানের শ্রমিকও পায়, সবাই পায়। সব ধর্ম, বর্ণ, সব জাতি সবাই পায়। তোমরা কেন বন্ধ করে দিয়েছ?’ 

উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা চিন্তা করবেন না।  আপনাদের পাহারাদার হিসেবে আমি থাকি সব সময়ে। আমি শুধু নির্বাচনের সময়ে একথা বলি না। আমি সব সময়ে বলি। এই ‘ওবিসি’ স্কলারশিপের টাকা ৮০০ টাকা করেই আমরাই দেবো। তোমার দেওয়ার প্রয়োজন নেই। তুমি যখন বন্ধ করে দিয়েছ, নির্বাচনের সময়ে বলতে আসবে না ‘ওবিসি’ বন্ধুরা ভোট দাও।’

মমতা কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করে বলেন, ‘ওবিসি ছাত্রদের যারা টাকা বন্ধ করেছেন, তারা পাপ করতে পারে, আমি পাপ করতে পারি  না। ‘কুকুরের কাজ কুকুর করেছে, কামড় দিয়েছে পায়’, একটা প্রবাদ আছে ‘তাই বলে কী কুকুরকে কামড়ানো মানুষের শোভা পায়? আমি  ‘কুকুর’ কাউকে বলছি না। আমি একটা প্রবাদ বলছি। প্রবাদের মধ্য  দিয়ে আমি এটাই বলতে চাই, দিও না তুমি সব বন্ধ করে দাও, কিন্তু নিওনা। আগামীদিন যাতে না নিতে পারো তার ব্যবস্থার জন্যও আমরা তৈরি থাকব।’ 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাম না করে মমতা আজ তীব্র কটাক্ষ করে বলেন, ‘সব জায়গায় দেখবেন একটা মুখ। ‘উনি’ রেশন দিয়েছেন, উনি বাড়ি দিয়েছেন, উনি খেতে দিয়েছেন। তাহলে মৃত্যু হলেও উনার ছবিটা  থাকা উচিত। উনি মেরে দিয়েছেন, উনি কোভিড দিয়েছেন, উনি  নোটবন্দি (নোট বাতিল) দিয়েছেন, কত কী দিয়েছেন। গ্যাসের দাম বাড়িয়েছেন, মানুষের অধিকার কেড়ে নিয়েছেন। কত কী দিয়েছেন। আরে, ছবি সব কথা বলে না। ছবি তাদেরই টাঙানো যায়, যে ছবি  মানুষের মনের ভাষা বোঝে। মানুষ যাকে শ্রদ্ধা করে, মানুষ যাকে ভালোবাসে, মানুষ যাকে যত্ন করে’ বলেও মন্তব্য করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
খবর পার্স টুড/এনবিএস/২০২৩/একে