সুষ্ঠুভাবে টেট নেওয়াই চ্যালেঞ্জ, পরীক্ষার্থীদের জন্য হেল্পলাইন চালুর নির্দেশ মুখ্যসচিবের

সুষ্ঠভাবে টেট (TET) নিতে বদ্ধ পরিকর রাজ্য। পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে হেল্পলাইন চালু করার সিদ্ধান্ত নিল সরকার। পরীক্ষা চলাকালীন বা পরীক্ষার আগে কোন অসুবিধা হলে এই হেল্পলাইন নম্বর মারফত যোগাযোগ করবেন পরীক্ষার্থীরা।

আগামী মাসের ১১ তারিখ টেট পরীক্ষা। নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে চাপানউতোরের মাঝে সুষ্ঠভাবে পরীক্ষা পরিচালনা করাই চ্যালেঞ্জ। ফলে পর্ষদের তরফে একাধিক পদক্ষেপ করা হতে পারে বলেই সূত্রের খবর। তারই মধ্যে বৃহস্পতিবার টেট নিয়ে বৈঠক সারলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। জানা গিয়েছে, টেট পরীক্ষার্থীদের জন্য চালু করা হবে হেল্পলাইন নম্বর। পরীক্ষা চলাকালীন বা পরীক্ষার পরে কোনও অসুবিধা হলে এই হেল্পলাইন নম্বরে যোগাযোগ করতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা।

[আরও পড়ুন: মোদির বৈঠকে যোগ দিতে ডিসেম্বরের শুরুতেই দিল্লি সফরে মুখ্যমন্ত্রী, যাবেন রাজস্থান ও মেঘালয়েও]
সাঁতরাগাছি ব্রিজে মেরামতির কাজ চলছে। তাই পরীক্ষার্থীদের ব্রিজে কোনও সমস্যা তৈরি না হয় তার জন্য হাওড়ার পুলিশ কমিশনারকে বিশেষ নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব। পরীক্ষা নিয়ে কোনও সমস্যা হলে জেলাশাসকরা দায়বদ্ধ হবেন, বৈঠকে তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মুখ্যসচিব।

এদিকে, আঁটোসাঁটো ব্যবস্থা নিচ্ছে পর্ষদও। শোনা যাচ্ছে, যে যে জায়গায় পরীক্ষা কেন্দ্র থাকবে, সেখানে জারি করা হতে পারে ১৪৪ ধারা। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের মতো করে নির্দিষ্ট এলাকায় বন্ধ রাখা হতে পারে ইন্টারনেট পরিষেবা, এমনকী জেরক্সের দোকানও। লাউড স্পিকার ব্যবহারে জারি হতে পারে নিষেধাজ্ঞা। কোনও ইলেকট্রনিক গেজেট নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না পরীক্ষার্থীরা। কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পরিমানে পুলিশ মোতায়েন করা হবে। খাতা সংরক্ষণের ক্ষেত্রেও বিশেষ যত্ন নেওয়া হবে।
সংবাদ প্রতিদিন/এনবিএস/২০২২/একে news