ঋষিই কি হবেন বরিসের উত্তরসূরি? ব্রিটেনে প্রধানমন্ত্রিত্বের দৌড়ে আরও একধাপ এগোলেন নারায়ণমূর্তির জামাই

 বরিস জনসনের পর ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে কে যাবেন, তা জানা যাবে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর। ওই দিন কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যেরা ভোটাভুটির মাধ্যমে তাঁদের পরবর্তী নেতা নির্বাচন করবেন। তিনিই হবেন ব্রিটেনের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী (Rishi Sunak)। এই দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে গেছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি সুনক। সোমবারের ভোটে জিতে বরিস জনসনের উত্তরসূরি হওয়ার দৌড়ে আরও এক পা এগিয়ে গেলেন ঋষি।

কনজারভেটিভ দলের নেতা হিসাবে এখন পর্যন্ত যে কয়েকটি ধাপে ভোট হয়েছে তাতে স্পষ্ট, প্রধানমন্ত্রীর দৌড়ে এগিয়েই রয়েছেন ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসের কর্ণধার নারায়ণমূর্তির জামাই ঋষি (Rishi Sunak)। বুধ, বৃহস্পতিবারের পরে গতকালের ভোটে তৃতীয় রাউন্ডেও জিতে গেলেন অক্সফোর্ডের প্রাক্তনী ঋষি সুনক। তৃতীয় রাউন্ডে ১১৫টি ভোট পেয়েছেন তিনি। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পেনি মরড্যন্ট পেয়েছেন ৮২টি ভোট। তবে ব্রিটেনের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী ঋষিই বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের উত্তরসূরি হবেন কি না তা এখনও জোর দিয়ে বলা যাচ্ছে না। কারণ শেষ দফার ভোটাভুটিতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

প্রাথমিক ভাবে ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য ১১ জন প্রার্থী রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে থেকে একটি বিশেষ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দু’জনকে বেছে নেওয়া হবে। সেই দু’জনের মধ্যে পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে এক জনকে বেছে নেবেন কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যেরা। এখনও পর্যন্ত তিন’দফায় নির্বাচন হয়েছে৷ সেই তিনটি রাউন্ডেই অন্যান্য দাবিদারদের পিছনে ফেলে অনেকটাই এগিয়ে গেছেন ঋষি সুনক। ঋষিকে বেছে নেওয়া হলে তিনিই হবেন ব্রিটেনের প্রথম অশ্বেতাঙ্গ প্রধানমন্ত্রী।

ঋষি (Rishi Sunak) ছাড়াও প্রধানমন্ত্রিত্বের দৌড়ে রয়েছেন চার জন ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত, দু’জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত, এক জন নাইজেরীয় এবং এক জন কুর্দ বংশোদ্ভূত৷ তাদের মধ্যে চারজন ইতিমধ্যেই বাদও পড়েছেন। ঋষি ছাড়া আর একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত হলেন সুয়েলা ব্রেভারম্যান। বরিস জনসনের পর প্রধানমন্ত্রিত্বের দৌড়ে রয়েছেন সরকারেরই বিদেশমন্ত্রী লিজ ট্রাস। আইন, বাণিজ্য, রাজস্বের মতো একাধিক দফতর সামলানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। বৃহস্পতিবারের ভোটে ৬৪টি ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছিলেন লিজ ট্রাস।খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২২/একে  news