ঢাকা, শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪ | ৬ আষাঢ় ১৪৩১
Logo
logo

ইউক্রেনের আপত্তির পরও নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে রাশিয়া


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ০১ এপ্রিল, ২০২৩, ০৫:০৪ পিএম

ইউক্রেনের আপত্তির পরও নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে রাশিয়া

 ইউক্রেনের আপত্তির পরও নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বে রাশিয়া


জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্বভার গ্রহণ করেছে রাশিয়া। যদিও পরিষদের বাইরের দেশ ইউক্রেন তাতে প্রবল আপত্তি জানিয়ে সদস্যদেশগুলোর প্রতি রাশিয়াকে সভাপতি না করার আহবান জানায়।  

তবে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব চলমান পরিবর্তন পদ্ধতি অনুযায়ী ১৫টি সদস্যদেশের একটি পেয়ে থাকে প্রতি এক মাসের জন্য। এরআগে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে শেষবারের মতো পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে।

রাশিয়ার সেনাবাহিনী ইউক্রেনে হামলা চালানোর কারণেই ইউক্রেন আপত্তি করেছিল। তাদের এই হামলার কারণে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি আন্তর্জাতিক গ্রেপ্তারী পরোয়ানা রয়েছে। তার মানে এটাই দাঁড়াচ্ছে যে, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি যিনি, তিনি একজন যুদ্ধাপরাধী ও গ্রেপ্তারী পরোয়ানার আসামী।
 
অবশ্য আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত জাতিসংঘের অন্তর্ভুক্ত নয়। ইউক্রেন আপত্তি করলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, তারা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হওয়ায় রাশিয়াকে সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণে কোনো প্রকার বাঁধা সৃষ্টি করতে পারবে না। রাশিয়া ছাড়া অন্য স্থায়ী সদস্যদেশ চারটি হলো; যুক্তরাজ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও ফ্রান্স।

সভাপতির দায়িত্ব পালনে নির্দিষ্ট কিছু ফরমুলা রয়েছে। তবে জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি নেবেজিয়া বলেন, তিনি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বিতর্ক অবলোকন করবেন, যার মধ্যে রয়েছে অস্ত্র নিয়ন্ত্রন।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা এবার নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব রাশিয়ার পাওয়াকে এপ্রিল ফুলের সেরা কৌতুক বলে বর্নণা করেছেন।


এনবিএস/ওডে/সি