ঢাকা, শুক্রবার, এপ্রিল ১২, ২০২৪ | ২৯ চৈত্র ১৪৩০
Logo
logo

ওভাল টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিদায়ী ম্যাচ রাঙালেন ব্রড


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ০১ আগস্ট, ২০২৩, ০১:০৮ পিএম

ওভাল টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিদায়ী ম্যাচ রাঙালেন ব্রড

ওভাল টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিদায়ী ম্যাচ রাঙালেন ব্রড

 রোমাঞ্চ, বিতর্ক, নাটক আর উত্তেজনায় ভরা ঐতিহ্যবাহী অ্যাশেজ সিরিজ শেষ হলো ওভালে ইংল্যান্ডে জয় দিয়ে। সিরিজ রক্ষার করার ম্যাচে পিছিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্বাগতিরা। এই ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছেন কিংবদন্তি ইংলিশ পেসার স্ট্রুয়াট ব্রড। শেষ ম্যাচটাও জয় দিয়ে রাঙিয়ে রাখলেন তিনি।

তাই টানা ২২ বছর ইংল্যান্ডের মাটিতে অ্যাশেজ জিততে না পারার অতৃপ্তি নিয়ে দেশে ফিরবে অস্ট্রেলিয়া। অবশ্য আগের অ্যাশেজ সিরিজ জেতায় ভস্মাধারটা থাকবে তাদেরই। ওভালে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড ২৬৩ রানের। ১৯০২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১ উইকেট হাতে রেখে জিতেছিল 

রেকর্ডটা ভেঙে জয়ের জন্য আশা জাগিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। একটা সময় বিনা উইকেটে ১৪০ রান করেছিল অস্ট্রেলিয়া। দ্রুত ৩ উইকেট হারালেও স্টিভেন স্মিথ ও ট্রাভিস হেডের দৃঢ়তায় স্কোরটা পৌঁছে ৩ উইকেটে ২৬৪ তে। কিন্তু বৃষ্টিতে একটা সেশন ভেসে যাওয়ায় ছন্দপতন ঘটে অস্ট্রেলিয়ার। স্যাঁতসেতে কন্ডিশনে স্মিথ (৫৪ রান), হেড (৪৩), মার্শ (৬), স্টার্ক (০) ও কামিন্সকে (৯) হারায় সফরকারীরা। এই ধাক্কাটাই আর কাটিয়ে উঠতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। 

চতুর্থ দিন বিতর্ক তৈরি হয় ৩৭তম ওভারে আম্পায়ার বল পরিবর্তন করলে। ৩৭তম ওভারে মার্ক উডের বাউন্সার আঘাত হানে খাজার হেলমেটে। তখনই বল বদলে দেন আম্পায়ার। এ নিয়ে অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি রিকি পন্টিংয়ের অসন্তোষ। এই বলটা আগের চেয়ে অনেক শক্ত। এ নিয়ে তদন্ত হওয়া উচিত। ৩৩ টেস্ট খেলা কালাম ফার্গুসনের ক্ষোভ, ম্যাচের এই পর্যায়ে বল বদলানো লজ্জার।

বৃষ্টিতে চতুর্থ দিন ৩৮ ওভারে বিনা উইকেটে ১৩৫ রানে দিন শেষ করেছিল অস্ট্রেলিয়া। পঞ্চম দিনে নতুন বলের ফায়দা নিয়ে মেঘলা কন্ডিশনে পর পর দুই ওভারে দুই ওপেনারকে ফেরান ক্রিস ওকস। ডেভিড ওয়ার্নার ৬০ ও উসমান খাজা করেছিলেন ৭২। মার্ক উড ১৩ রান করা মার্নাস লাবুশানেকে ফেরালে জমে উঠে ম্যাচ। কিন্তু স্টিভেন স্মিথ ও ট্রাভিস হেডের চতুর্থ উইকেটে ৯৫ রানের জুটিতে চাপটা কাটায় অস্ট্রেলিয়া। স্মিথের ক্যাচ স্টোকস তালুবন্দী করলেও শেষ পর্যন্ত ধরে রাখতে পারেননি। পরে স্মিথকে আউট করেছেন ওকস। অস্ট্রেলিয়ার শেষ দুই উইকেট তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডকে জয় এনে দেন ব্রড। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি