ঢাকা, শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪ | ৬ আষাঢ় ১৪৩১
Logo
logo

কানাডার নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল ভারত


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ০৯ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:০৪ পিএম

কানাডার নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল ভারত

কানাডার নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল ভারত

সম্প্রতি ভারত ও পাকিস্তান কানাডার নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন কানাডার গোয়েন্দারা। ভারত সেই অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে।

কানাডার নিরাপত্তা বিষয়ক গোয়েন্দা সংস্থা (সিএসআইএস) সম্প্রতি একটি তদন্ত রিপোর্টের সারসংক্ষেপ প্রকাশ করে, যাতে ২০১৯ এবং ২০২১ সালের সাধারণ নির্বাচনে যথাক্রমে পাকিস্তান এবং ভারত গোপনে সক্রিয় ছিল বলে অভিযোগ করা হয়েছে। 

দেশ দুইটি কানাডার নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে চেয়েছিল বলে কানাডীয় গোয়েন্দাদের দাবি। তাদের বক্তব্য, ২০২১ সালে ভারত সরকার বিশেষ করে কানাডার ভারতীয়-অধ্যুষিত নির্বাচনী এলাকাগুলিতে নিয়ে আলাদা করে নজরদারি চালিয়েছিল খালিস্তানপন্থী এবং তাদের কর্মকাণ্ডে সহানুভূতি সম্পন্ন ভোটারদের উপরে নজর ছিল। প্রক্সি এজেন্ট তৈরি করে অর্থের বিনিময়ে জনমত ঘোরানোর চেষ্টাও হয়েছিল বলে কানাডার দাবি। 

একই রকমভাবে ২০১৯ সালে পাকিস্তান তার নিজের স্বার্থ ইন্ধন দিতে সক্রিয় ছিল বলেও অভিযোগ করা হয়েছে। এ বছর জানুয়ারি মাসে এই তদন্তের ব্যাপারে অগ্রসর হয় কানাডা। গত বছরে কানাডায় চীনের প্রভাব খাটানোর ব্যাপারে গোয়েন্দা রিপোর্ট ফাঁস হওয়ার পরেই পুরো বিষয়টি নিয়ে তদন্তের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। চীনের পাশাপাশি নাম জড়ায় রাশিয়া, ভারত, পাকিস্তানেরও।

ভারত অবশ্য প্রথম থেকেই এই সব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে। ফেব্রুয়ারিতেই ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রণধীর জয়সওয়াল বলেন, ‘‘কানাডীয় কমিশনের তদন্ত বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে জেনেছি। কানাডার নির্বাচনে ভারতীয় হস্তক্ষেপের ভিত্তিহীন অভিযোগ আমরা সরাসরি অস্বীকার করছি। অন্য দেশের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করা ভারতের নীতি নয়। বরং কানাডাই আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলিয়ে আসছে।’’

পাকিস্তান এখনো এই অভিযোগের বিষয়ে কোন প্রতিক্রিয়া দেয়নি