ঢাকা, শুক্রবার, জুন ১৪, ২০২৪ | ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
Logo
logo

নারী প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে থাকছে না পুল পদ্ধতি 


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ২২ এপ্রিল, ২০২৪, ১০:০৪ পিএম

নারী প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে থাকছে না পুল পদ্ধতি 

নারী প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে থাকছে না পুল পদ্ধতি 

মেয়েদের ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের (ডিপিএল) থাকছে না পুল পদ্ধতি। সাধারণত লিগের দলগুলোর মধ্যে শক্তির ভারসাম্য রাখতেই পুল প্রথা চালু হয়। পুলের নির্দিষ্ট সংখ্যক খেলোয়াড়ের মধ্যে প্রতিটি দল সর্বোচ্চ ৪ জন করে নিতে পারে। কিন্তু এই প্রথা বাতিল করাই প্রতিটি ক্লাব যতজন খুশি জাতীয় দলের খেলোয়াড় নিতে পারবে।

রোববার (২১ এপ্রিল) মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কার্যালয়ে মেয়েদের লিগের ক্লাবগুলোর সঙ্গে বিসিবির নারী বিভাগের এক সভায় এ সিদ্ধান্তই হয়েছে।

পুল না থাকায় স্বাভাবিকভাবেই আর্থিকভাবে সামর্থ্যবান কয়েকটি ক্লাব জাতীয় দলের বেশির ভাগ ক্রিকেটার নিয়ে নেবে। বাকি দলগুলোকে খেলতে হবে জাতীয় দলের বাইরের খেলোয়াড়দের নিয়ে। -প্রথম আলো

এবারের লিগে পুল পদ্ধতি না থাকার কারণ জানতে চাইলে বিসিবির নারী বিভাগের প্রধান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল জানান, ইচ্ছা থাকার পরও দুই একটি ক্লাবের ইচ্ছায় তাদের পুল পদ্ধতি থেকে সরে আসতে হয়েছে। টুর্নামেন্টটাকে ভারসাম্যপূর্ণ রাখতেই আমরা পুল চেয়েছিলাম। যে ক্লাবগুলো অংশগ্রহণ করবে তারা যেন ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়তে পারে।

পুল পদ্ধতি রাখতে পারছেন না বলে একটু হতাশ হয়েই নাদেল বলেন, টুর্নামেন্ট যদি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ না হয় তাহলে উদ্দেশ্য ব্যাহত হয়। শেষ পর্যন্ত এবার পুল রাখতে পারিনি। দুই-একটি ক্লাবের চাওয়ায় ও কিছু ভিন্নমত থাকার কারণে পারছি না। ব্যক্তিগতভাবে আমি অবশ্যই হতাশ। আমি মনে করি পুল রাখতে না পারাটা আমাদের জন্য একটা ব্যর্থতা।

১১ ও ১২ মে হবে দলবদল, লিগ শুরু ১৭ মে থেকে। খেলা হবে বিকেএসপির তিনটি মাঠে। গতবারের মতো এবারও লিগের অংশগ্রহণ ফি থাকছে ৩ লাখ টাকা। চ্যাম্পিয়ন দল পাবে দেড় লাখ টাকা, রানারআপ এক লাখ টাকা, তৃতীয় সেরা দল ৫০ হাজার টাকা ও চতুর্থ সেরা দল পাবে ৪০ হাজার টাকা। যাতায়াতের জন্য প্রতি ম্যাচে ১০ হাজার টাকা করে পাবে দলগুলো। খাবারের জন্য ম্যাচ প্রতি থাকবে ৭ হাজার টাকা করে।সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি