ঢাকা, সোমবার, মে ২০, ২০২৪ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
Logo
logo

ল্যাভরভ বললেন ‘গুরুত্বপূর্ণ কোনো প্রস্তাব নেই’


এনবিএস ওয়েবডেস্ক   প্রকাশিত:  ০১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩, ০৮:০২ পিএম

ল্যাভরভ বললেন ‘গুরুত্বপূর্ণ কোনো প্রস্তাব নেই’

ল্যাভরভ বললেন ‘গুরুত্বপূর্ণ কোনো প্রস্তাব নেই’

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ইউক্রেন ইস্যুতে মস্কোর কাছে নতুন কিছু বার্তা পাঠিয়েছেন। তবে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, ব্লিংকেনের বার্তার বিশেষ কোনো মূল্য নেই, কারণ এতে নতুন এবং গুরুত্বপূর্ণ কোনো প্রস্তাব নেই। মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সামেহ শুকরির সঙ্গে গতকাল (মঙ্গলবার) দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে একথা বলেন ল্যাভরভ।

তিনি বলেন, মস্কো সবসময় ওয়াশিংটনের কাছ থেকে আন্তরিক এবং গুরুত্বপূর্ণ কোনো প্রস্তাবনা শোনার জন্য প্রস্তুত থাকে কিন্তু মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের বার্তায় এমন কোনো তথ্য নেই। 
ল্যাভরভ বলেন, “মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শুকরি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেনের পক্ষ থেকে কিছু বার্তা এনেছেন যাতে সামরিক অভিযান বন্ধ করতে মস্কোর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে এবং বলা হয়েছে ইউক্রেন ছেড়ে চলে গেলে সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। ব্লিংকেন সম্প্রতি কায়রো সফর করেন। বার্তার পাওয়ার বিষয়টি আমি নিশ্চিত করছি।"
রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমেরিকা এবং পশ্চিমাদের আসল লক্ষ্য বরং ন্যাটো মহাসচিব ইয়েন্স স্টোলটেনবার্গের বক্তব্যে অনেক বেশি পরিষ্কারভাবে ফুটে উঠেছে। তিনি সম্প্রতি বলেছেন, "রাশিয়াকে অবশ্যই হারাতে হবে রাশিয়া অবশ্যই হারবে। পশ্চিমারা ইউক্রেনকে হারতে দিতে পারে না কারণ এতে পশ্চিমারাই হেরে যাবে এবং পুরো বিশ্ব হারবে।"
এর আগে আমেরিকার অনেক কর্মকর্তা ইউক্রেনে সামরিক অভিযান বন্ধ করতে দফায় দফায় মস্কোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, রাশিয়াকে অবশ্যই ইউক্রেনের দখল করা অংশ ছেড়ে দিতে হবে। সম্প্রতি মার্কিন আন্ডার সেক্রেটারি অব স্টেট ফর পলিটিক্যাল অ্যাফেয়ার্স ভিক্টোরিয়া নুল্যান্ড বলেছেন, রাশিয়া যদি ইউক্রেনের ভূমি ছেড়ে দেয় তাহলে মস্কোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি বিবেচনা করা হতে পারে। মস্কো এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে।
খবর পার্সটুডে/ এনবিএস/ ২০২৩/একে