ইরানের সঙ্গে সহযোগিতা চালিয়ে যেতে চায় আইএইএ: মহাপরিচালক

আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসি বলেছেন, তিনি চান না ইরানের সঙ্গে তার সংস্থার সহযোগিতা হ্রাস পাক।তবে তিনি ইরানের পরমাণু কর্মসূচিকে ‘উচ্চাভিলাষী’ দাবি করে বলেছেন, এই কর্মসূচিকে সন্দেহ করার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে।

তিনি গতকাল (সোমবার) ভিয়েনায় আইএইএ’র নির্বাহী বোর্ডের ত্রৈমাসিক বৈঠক শুরুর আগে বলেছেন, ইরানকে তার পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে সৃষ্ট অস্পষ্টতা দূর করতে হবে। বৈঠকটি সোমবার শুরু হয়েছে এবং শুক্রবার পর্যন্ত চলবে।  

গ্রোসি বলেন, নির্বাহী বোর্ডের চলতি সপ্তাহের বৈঠকে আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানির পক্ষ থেকে ইরানের ব্যাপারে তৈরি করা একটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে। তিনি দাবি করেন, ইরানের তিনটি অঘোষিত স্থানে ইউরেনিয়ামের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে এবং এ ব্যাপারে তেহরান কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি।

এর আগে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান ওই বৈঠকে ইরানবিরোধী প্রস্তাব অনুমোদনের ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।তিনি এক টুইটার বার্তায় বলেন, প্রস্তাবটির প্রস্তুতকারকরা যদি ইরানকে হুমকি দেয়ার পথ বেছে নেয় তাহলে তার পরিণতির দায় তাদেরকেই নিতে হবে।

আমেরিকা ও তিন ইউরোপীয় দেশ আলোচ্য প্রস্তাবে ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে বলে পশ্চিমা বার্তা সংস্থাগুলো জানিয়েছে।তবে সোমবার প্রস্তাবটি উত্থাপন করা হয়নি।

ভিয়েনায় যখন পাঁচ বিশ্বশক্তির সঙ্গে ইরান পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সংলাপ চালিয়ে যাচ্ছে তখন আইএইএ’র নির্বাহী বোর্ডের সভায় ইরানবিরোধী প্রস্তাব উত্থাপনের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। ইরান বিষয়ক সংলাপটি গত মার্চ মাস থেকে স্থগিত রয়েছে।

সংলাপের প্রধান সমন্বয়কারী ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা জোসেপ বোরেল সম্প্রতি এক টুইটার বার্তায় বলেছেন, ভিয়েনা সংলাপের মাধ্যমে ইরানের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে এসেছে; তবে ব্যাপক প্রচেষ্টা চালালে এখনও এই সংলাপ আবার শুরু করে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করা সম্ভব।

এদিকে চীন এবং রাশিয়া হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, আইএইএ’র নির্বাহী বোর্ডের সভায় ইরানবিরোধী যেকোনো প্রস্তাব ভিয়েনা সংলাপকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে। এর পরিবর্তে ইউরোপকে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করার আহ্বান জানিয়েছে রাশিয়া।।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে

news