ভারতে লোকসভা নির্বাচনে শেষ দফার ভোট গ্রহণ, ৪ জুন ফলাফল

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে শনিবার (১ জুন) সপ্তম ও শেষ দফার ভোট গ্রহণ করা হয়। এ দফায় সাত রাজ্য ও একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৫৭টি আসনের ভাগ্য নির্ধারিত হবে। 

এ দফায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নরেন্দ্র মোদিসহ ৯০৪ জন প্রার্থী। সাত পর্বের এ দীর্ঘ নির্বাচন শুরু হয় গত ১৯ এপ্রিল। সর্বশেষ এ দফার ভোটের পর ৪ জুন ভোট গণনা ও ফল প্রকাশ করা হবে।

দুই মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি(বিজেপি) এবং ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন গণতান্ত্রিক জোটের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে এ নির্বাচনে। ৫৪৩ আসনের লোকসভা নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ৯৬ কোটি ৯০ লাখ। 

এই দফাতেই উত্তর প্রদেশের বারানসিসহ বাকি মোট ১৩ আসনে,  পাঞ্জাবের ১৩ আসনে, পশ্চিমবঙ্গের ৯ আসনে ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে। একই সঙ্গে ভোট গ্রহণ হবে বিহারের ৮, উড়িষ্যার ৬, হিমাচল প্রদেশের ৪ ও ঝাড়খন্ডের ৩ এবং কেন্দ্রশাসিত চণ্ডীগড়ের একমাত্র আসনে। 

এ দফার ভোটের মূল আকর্ষণ  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।তিনি নিজে উত্তর প্রদেশের বারানসি আসনে বিজেপির প্রার্থী। ২০১৪ সালে গুজরাটের বরোদা ছাড়াও তিনি দাঁড়িয়েছিলেন বারানসিতে। দুই আসনেই জেতার পর বরোদা ছেড়ে বারানসিকেই তিনি আঁকড়ে ধরেন। 

এবার জিতলে সেটা হবে তাঁর জয়ের হ্যাটট্রিক। প্রধানমন্ত্রী হিসেবেও তিনি ক্ষমতাসীন থাকার হ্যাটট্রিক করতে চাইছেন।এদিকে দক্ষিণ ভারতের শেষ ভূখণ্ড কন্যাকুমারীতে সমুদ্রের মধ্যে অবস্থিত ‘বিবেকানন্দ রক’-এ গিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে সেখানে শুরু করেছেন মোদি। শনিবার ভোট পর্ব সাঙ্গ হলে তিনি ধ্যান ভঙ্গ করবেন।

২০১৪ সালের নির্বাচনী প্রচার শেষ হলে তিনি মহারাষ্ট্রের প্রতাপগড়ে গিয়ে ধ্যান করেছিলেন। ২০১৯ সালে ভোটের প্রচার বন্ধ হলে চলে গিয়েছিলেন কেদারনাথ। সেখানে এক গুহায় ধ্যান করেছিলেন। এবার তিনি বেছে নিলেন কন্যাকুমারী। তফাত একটাই, আগের দুবার তিনি ছিলেন নশ্বর মানব, এবার নিজেকে অবিনশ্বর ঘোষণা করে জানিয়েছেন, তিনি ঈশ্বর প্রেরিত। পরমাত্মার অংশ।

কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে শুক্রবার বলেন, ঈশ্বরের আরাধনা করতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী করতেই পারেন। তবে তা নিজ গৃহে করুন। রাজনীতির সঙ্গে ধর্মকে মেশাবেন না। সেটা অধর্ম। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news