আর্থিক সংকটে জেরবার শ্রীলঙ্কা, এবার একসঙ্গে ভারত ও চিনের সাহায্য চাইছে দ্বীপরাষ্ট্র

 ভারত ও চিনের কাছে একসঙ্গে সাহায্য চাইতে চলেছে শ্রীলঙ্কা (Sri Lanka)। সত্তর বছরে সবচেয়ে বড় আর্থিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দ্বীপরাষ্ট্র। বিদেশি ঋণের ভারে জর্জরিত দেশের অর্থনীতি (Sri Lanka Crisis)। এহেন পরিস্থিতিতে ‘পুরনো বন্ধু’ ভারত, চিন ও জাপানের কাছে সাহায্য চাওয়ার পরিকল্পনা করছে শ্রীলঙ্কা। ইতিমধ্যেই আর্থিক সংকট মোকাবিলায় ইন্টারন্যাশনাল মানিটরি ফান্ডের সঙ্গেও আলোচনা চালাচ্ছে শ্রীলঙ্কা।

ব্যাপক মূল্যবৃদ্ধির সমস্যায় ভুগছে শ্রীলঙ্কাবাসী। পাওয়া যাচ্ছে না নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র। ফলে ক্রমেই জনরোষের মুখে পড়ছে দেশের সরকার। তাই বাধ্য হয়েই নানা দেশ ও সংস্থার কাছে সাহায্য চাইতে বাধ্য হচ্ছে শ্রীলঙ্কার সরকার। সংসদে দাঁড়িয়ে সেদেশের প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে বলেছেন, “বহুদিন ধরেই আমাদের বন্ধু ভারত, চিন (China) এবং জাপান (Japan)। এই দুর্দিনে তাদের সাহায্য আমাদের খুবই প্রয়োজন।”


আপাতত এই তিন দেশকে একসঙ্গে নিয়ে বৈঠক করার কথা ভাবছে শ্রীলঙ্কা। বিক্রমসিংহে বলেছেন, “এই তিন দেশকে একসঙ্গে নিয়ে একটি ডোনার কনফারেন্স করা যেতে পারে। সেখানে আলোচনার মাধ্যমে শ্রীলঙ্কার সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা করা হবে।” তিনি আরও জানিয়েছেন, আগামী বৃহস্পতিবার ভারত (India) থেকে শীর্ষ স্তরের একটি প্রতিনিধি দল শ্রীলঙ্কায় গিয়ে আলোচনায় বসবে। আমেরিকার কাছ থেকেও সাহায্য চাওয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছেন বিক্রমাসিংহে।

ইতিমধ্যেই শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত। প্রায় তেইশ হাজার কোটি টাকার সহায়তা করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, শ্রীলঙ্কার বিপুল পরিমাণ বিদেশি ঋণের মধ্যে প্রায় অর্ধেকটাই নেওয়া হয়েছে চিনের থেকে। কিন্তু সাহায্য করার ইঙ্গিত দিয়েছে বেজিংও। যেভাবে শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত, তার প্রশংসাও করেছে চিন প্রশাসন। দ্বীপরাষ্ট্রের সমস্যা সমাধান করতে ভারতের সঙ্গে মিলিত ভাবে কাজ করার আগ্রহও প্রকাশ করা হয়েছে চিনের তরফে। যদিও ভারত মহাসাগরে আধিপত্য বিস্তার করা নিয়ে চিন ও ভারতের মধ্যে ঠাণ্ডা লড়াই লেগেই থাকে। কিন্তু আপাতত সেই সব ভুলে শ্রীলঙ্কার পাশে দাঁড়াতে পারে দুই দেশ।সংবাদ প্রতিদিন /এনবিএস/২০২২/একে news