বিশ্ব পরমাণু যুদ্ধ থেকে 'এক কদম' দূরে রয়েছে: জাতিসংঘ মহাসচিব

জাতিসংঘ মহাসচিব আ্যান্তনিও গুতেরেস বলেছেন, বিশ্ব ভয়াবহ পরমাণু যুদ্ধের একেবারে দ্বার প্রান্তে রয়েছে এবং সামান্য ভুলের কারণে মহাবিপর্যয় নেমে আসতে পারে।

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি বা এনপিটি’র দশম পর্যালোচনা সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেয়া ভাষণে গুতেরেস এ কথা বলেন। নিউইয়র্কের জাতিসংঘ সদর দপ্তরে গতকাল (সোমবার) এই সম্মেলন শুরু হয়। করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে দুই বছর দেরি করে সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের চলমান দ্বন্দ্ব-সংঘাতের কথা উল্লেখ করে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, স্নায়ু যুদ্ধের অবসানের পর বিশ্ব কখনো এত বেশি পরমাণু যুদ্ধের ঝুঁকির মুখে ছিল না। একই সঙ্গে তিনি এও বলেন যে, চলমান বৈশ্বিক সংকট সম্ভাব্য পরমাণু যুদ্ধের দিকে মোড় নিতে পারে।

তিনি বলেন, “এখন পর্যন্ত আমরা অসাধারণভাবে ভাগ্যবান। কিন্তু ভাগ্য কোনো কৌশল নয়। ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার ক্ষেত্রে পরমাণু সংঘাতে ভাগ্য রক্ষাকবচ হয়েও দেখা দেয় না।”

জাতিসংঘ মহাসচিব সব দেশকে পরমাণু মুক্ত বিশ্বের দিকে মানবতাকে পরিচালনার আহ্বান জানান। জাতিসংঘ মহাসচিব সুস্পষ্ট করে বলেন, “পরমাণু অস্ত্র ধ্বংসই একমাত্র নিশ্চয়তা দেয় যে, পরমাণু শক্তিধর দেশগুলো কখনো আর তা ব্যবহার করবে না, পরমাণু অস্ত্র হাতে থাকা অবস্থায় সেগুলোর ব্যবহার না করার কোনো নিশ্চয়তা নেই।”

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি বা এনপিটিতে সই করা দেশগুলো প্রতি পাঁচ বছর অন্তর এটি পর্যালোচনা করে। পরমাণু অস্ত্র বিস্তার রোধ, পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ সম্পন্ন এবং শান্তিপূর্ণ পরমাণু ব্যবহারের ক্ষেত্রে সহযোগিতার লক্ষ্য নিয়ে এনপিটি সই হয়েছিল। কিন্তু এই পর্যন্ত এনপিটি তার কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন করতে ব্যর্থ হয়েছে।।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে news