তাজিকিস্তান-কিরগিজস্তান সংঘর্ষে নিহত অন্তত ১০৫; আগ্রাসন বলছে দুশাম্বে

সীমান্ত সংঘর্ষের জন্য কিরগিজস্তানকে দায়ী করেছে তাজিকিস্তান। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আজ (সোমবার) এক বিবৃতিতে বলেছে, তারা আগ্রাসনের শিকার হয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, কিরগিজ সেনারা সীমান্তবর্তী এলাকার নানা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও উপশহরসহ বিভিন্ন অবকাঠামোতে হামলা চালিয়েছে। এ পর্যন্ত তাদের ৪৬ জন প্রাণ হারিয়েছে বলে বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে। দুশাম্বের এই বিবৃতির সঙ্গে একমত নয় কিরগিজস্তান।

এক বিবৃতিতে কিরগিজ সীমান্তরক্ষী বাহিনী হামলার জন্য তাজিকিস্তানকে অভিযুক্ত করে বলেছে, তাজিকিস্তানের চালানো হামলা ঠেকানো অব্যাহত রেখেছেন তাদের সেনারা। কিছু এলাকায় তুমুল লড়াই চলছে বলেও জানানো হয় বিবৃতিতে।

বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে, কিরগিজস্তানের সঙ্গে সবশেষ সীমান্ত সংঘর্ষে তাজিকিস্তানের যে ৪৬ জন নাগরিক নিহত হয়েছে তার মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছে। এছাড়া কিরগিজস্তানের অন্তত ৫৯ জন নাগরিক নিহত হয়েছে। সব মিলিয়ে এই সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা অন্তত ১০৫। এ ছাড়া আহত আরও বহু মানুষ।

কিরগিজস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় বাতকেন ও তাজিকিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় সুগদ অঞ্চলে এ সংঘর্ষ হয়েছে। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত এই দুই দেশকেই শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর এ দুই দেশের দ্বন্দ্ব অব্যাহত রয়েছে। অমীমাংসিত সীমান্ত নিয়ে দেশ দুটির মধ্যে প্রায়ই এ ধরনের সংঘর্ষ হয়।
খবর পার্সটুৃডে/এনবিএস/২০২২/একে news