দাম কমায় সূর্যমুখী তেল ও গস রফতানি হ্রাস করছে রাশিয়া


 আন্তর্জাতিক বাজারে সূর্যমুখী তেল ও গমের মূল্য দ্রুত হ্রাসের কারণে এ দুটি পণ্য রফতানি হ্রাস করছে রাশিয়া। দেশটির কৃষি মন্ত্রণালয় এই সপ্তাহে সাময়িকভাবে রপ্তানি স্থগিত করার আগে উৎপাদকদের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে পারে। গত সপ্তাহে, সূর্যমুখী তেলের দাম প্রতি টন ১,১০০ থেকে ৮০০ ডলারে নেমেছে। আর গম প্রতি টন ৬০০ ডলার থেকে ৩৯৫ ডলারে নামে।

রাশিয়ার তেল রফতানি নিয়ন্ত্রণ সংস্থা এই সপ্তাহে উৎপাদকদের সাথে বসে রপ্তানি বিধিনিষেধ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। উপ কৃষিমন্ত্রী ওকসানা লুটের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থা এ কথা জানিয়েছে। উদ্ভিজ্জ তেল রপ্তানিকারকদের একজন এ ব্যাপারে পরিকল্পিত পদক্ষেপের কথা নিশ্চিত করেছেন।
রুশ মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিনিধি বলেছেন, সূর্যমুখী তেল উৎপাদকদের সাথে একটি পৃথক বৈঠকের সময়সূচী এখনো নির্ধারণ করা হয়নি। কৃষি বিশ্লেষণী সংস্থা সোভেকনের মতে, ২০২১ সালের পর প্রথমবারের মতো মার্চের শুরুতে রুশ গম প্রতি টন ৩০০ ডলারের নিচে লেনদেন করছে। একজন রপ্তানিকারক বলেছেন যে গমের দাম প্রতি টন ২৮০-২৭৫ ডলারে নেমে গেছে, ফলে প্রতি টন গত ২৫০ ডলারে পাওয়া যাবে।

সোভেকনের প্রধান, আন্দ্রে সিজভ, সূর্যমুখী তেল ও গমের দাম হ্রাসের জন্য আন্তর্জাতিক ব্যাংকিং সংকটকে দায়ী করেছেন। বেশ কয়েকটি মার্কিন ব্যাঙ্কের পতনের ফলে অপরিশোধিত তেলের দাম হ্রাস পেয়েছে, যা বিশ্ব বাজারে খাদ্য সামগ্রীর দাম হ্রাসে অবদান রেখেছে। তবে তিনি বিশ্বাস করেন, এই প্রবণতা স্বল্পস্থায়ী হবে

এনবিএস/ওডে/সি

news