পানির নীচে চলাচলযোগ্য পারমাণবিক ড্রোনের পরীক্ষা চালাল উ. কোরিয়া

উত্তর কোরিয়া পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম পানির নীচে চলাচলযোগ্য একটি যুদ্ধ ড্রোনের পরীক্ষা চালানোর কথা ঘোষণা করেছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ আজ (শুক্রবার) বলেছে, এই ড্রোনের মাধ্যমে সাগরে রেডিও একটিভ সুনামি সৃষ্টি করা সম্ভব।

কোরীয় উপদ্বীপে আমেরিকা ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ সামরিক মহড়ার জবাবে এ পরীক্ষা চালানো হয়েছে বলে কেসিএনএ জানিয়েছে। এটি বলেছে, পরীক্ষার সময় ড্রোনটি সাগরের ৮০ থেকে ১৫০ মিটার গভীরে ৫৯ ঘণ্টারও বেশি চলাচল করেছে এবং  উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে এটির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন নিজে এ পরীক্ষা তত্ত্বাবধান করেছেন জানিয়ে কেসিএনএ বলেছে, পানির নীচের এই পারমাণবিক ড্রোন যেকোনো সাগর উপকূলে মোতায়েন করা যায় এবং ওই সাগরে টহলরত জাহাজে বসে এটিকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

তবে এ খবর থেকে একথা পরিষ্কার হয়নি যে, উত্তর কোরিয়া অপেক্ষাকৃত ছোট বাহনে পরিবহন করার জন্য তার পরমাণু ওয়ারহেডগুলোর আকার ছোট করেছে কিনা। পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন, উত্তর কোরিয়া যদি তার পরমাণু অস্ত্রগুলোর আকার ছোট করার কাজে হাত দিয়ে থাকে তা হবে দেশটির জন্য একটি উল্লেখযোগ্য সাফল্য।
খবর পার্সটুড /এনবিএস/২০২৩/একে

news