দিনের আলো ফুটতেই প্রকাশ পেল নেপালের ভূমিকম্পের ধ্বংসলীলা 
 


নেপালে গত শুক্রবার মধ্যরাতের শক্তিশালী ভূমিকম্পের ধ্বংসলীলার ছবি শনিবার সকালে দিনের আলো ফুটতেই বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে।ভূমিকম্পে নেপাল ছাড়াও কেঁপে উঠেছিল দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, বিহারসহ ভারতের বহু জায়গা। তবে ভারতে এখনও পর্যন্ত কারও হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। তবে নেপালে ১২৮ জন মারা গেছেন। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সূত্র :আল-জাজিরা, রয়টার্স

 স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, ভূমিকম্পের জেরে বহু জায়গার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এ পরিস্থিতিতেও রাত থেকেই শুরু হয় উদ্ধারকাজ। এই ভূমিকম্পে আহত হয়েছেন অনেক মানুষ। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নেপালের ভূমিকম্প পর্যবেক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র শনিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ২৫০ মাাইল উত্তরপূর্বে অবস্থিত জাজারকোট জেলা ছিল এই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল। যুক্তরাষ্ট্রের ভূতত্ব জরিপ সংস্থা তাদের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেছে ভূপৃষ্ঠের ১১ মাইল গভীরে উৎপত্তি হয়েছে এ ভূমিকম্প।

এরআগে নেপালে তিনটি শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল।  এর আগে গত ২০১৫ সালে নেপালে ভয়াবহ  ভূমিকম্পে  মৃত্যু হয়েছিল প্রায় ৯ হাজার মানুষের। আহত হয়েছিলেন প্রায় ২২ হাজার মানুষ। গত শুক্রবার রাতের ভূমিকম্প  নেপালীদের মনে ২০১৫ সালের সেই ভীতি ছড়িয়ে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহাল এই ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। রাতেই জরুরি ভিত্তিতে শুরু হয়েছে উদ্ধারকাজ।

নেপালের রুকুম জেলায় বহু বাড়ি ভেঙে পড়েছে। ভূমিকম্পের পরপর জাজারকোট গ্রামগুলোর সঙ্গে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছিল না বলে জানা যায়। ওই গ্রামে বহু মানুষ থাকেন। পরে রাতের দিকে জাজারকোটের জেলা আধিকারিক সুরেশ কুমার সুনার জানান, উদ্ধারকাজ শুরু হয়েছে। বহু মানুষকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news