হামাসের সঙ্গে সম্পর্ক রাখবে মালয়েশিয়া

 মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইবরাহিম বলেছেন, তার দেশ ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষা করে চলবে এবং তাদের বিরুদ্ধে কোনো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে না।

গত মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার জাতীয় সংসদে তিনি বলেন, ‘ফিলিস্তিনি ইস্যুতে মালয়েশিয়ার সর্বসম্মতভাবে সমর্থন দেয়া উচিত।’ মার্কিন সরকার হামাসের আন্তর্জাতিক সমর্থকদের ওপর নিষেধজ্ঞা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ার পর আনেয়ার ইবরাহিম একথা বললেন। হামাস ও জিহাদ আন্দোলনের আন্তর্জাতিক সমর্থকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়ে গত সপ্তাহে মার্কিন কংগ্রেসে ভোটাভুটি হয়।

 বিশ্লেষকরা বলছেন, মালয়েশিয়া এমন একটি দেশ যেখানে সব রাজনৈতিক দল ফিলিস্তিনিদের প্রতি দীর্ঘদিন ধরেই সমর্থন দিয়ে আসছে এবং সে সমর্থন ব্যাপক মাত্রায়।

মার্কিন সরকারের ঘোষণার বিষয়ে মালয়েশিয়া সরকারের অবস্থান কী- গতকাল সংসদে তা জানতে চান বিরোধীদলের এক এমপি। বিরোধী এমপির প্রশ্নের জবাবে আনোয়ার ইবরাহিম বলেন, “আমেরিকার এই হুমকিসহ কোনো হুমকিই আমি মেনে নেব না। এই পদক্ষেপ একতরফা এবং এর কোনো বৈধতা নেই।” তিনি বলেন, “জাতিসংঘের সদস্য হিসেবে আমরা শুধু নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া কোনো প্রস্তাবকে স্বীকার করি।”

মালয়েশিয়া দীর্ঘদিন ধরেই ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংকটে ফিলিস্তিনের পক্ষে সমর্থন দিয়ে আসছে। দেশটি এখন পর্যন্ত ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেয়নি এবং স্বাধীন ফিলিস্তিন গঠন না হওয়া পর্যন্ত ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেবে না বলে অবস্থান নিয়েছে।সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news