লেবানন সরকার নিশ্চিত করলে ইসরাইলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত হিজুবল্লাহ

লেবাননের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর উপ মহাসচিব শেখ নাঈম কাসেম বলেছেন, যদি তার দেশের সরকার নিশ্চিত করে যে, ইহুদিবাদী ইসরাইল লেবাননের সমুদ্র অধিকার লঙ্ঘন করছে তাহলে তেল আবিবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হিজবুল্লাহ প্রস্তুত রয়েছে।

ভূমধ্যসাগরের বিতর্কিত পানি সীমায় ইসরাইলের একটি গ্যাস ড্রিলিং জাহাজ পৌঁছানোর পর হিজবুল্লাহর উপ মহাসচিব একথা বললেন। যে এলাকায় ইসরাইলের গ্যাস ড্রিলিং জাহাজ পৌঁছেছে তাকে লেবানন নিজের এলাকা মনে করে।

তিনি গতকাল (সোমবার) বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, বৈরুত যদি সুস্পষ্ট অবস্থান গ্রহণ করে তাহলে গোলযোগপূর্ণ পানিসীমায় ইসরাইলের গ্যাস ড্রিলিং জাহাজের বিরুদ্ধে শক্তি প্রয়োগসহ যেকোনো ব্যবস্থা নিতে হিজবুল্লাহ প্রস্তুত রয়েছে।

হিজবুল্লাহর এ নেতা বলেন, “যখন রাষ্ট্র হিসেবে লেবানন বলে যে, ইসরাইল আমাদের  পানিসীমায় আক্রমণ করছে এবং আমাদের তেল-গ্যাস নিয়ে যাচ্ছে তখন আমাদের পক্ষ থেকে চাপ সৃষ্টি, হামলা বা শক্তি প্রয়োগসহ যা কিছু করা দরকার তার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি।”

ব্রিটেনভিত্তিক ন্যাচারাল গ্যাস স্টোরেজ অ্যান্ড প্রডাকশন শিপ পরিচালিত ড্রিলিং জাহাজটি ভূমধ্যসাগরের কারিশ গ্যাসক্ষেত্রে পৌঁছানোর একদিন পর হিজবুল্লাহর উপ মহাসচিব এসব কথা বললেন। গ্যাসক্ষেত্রটি হাইফা বন্দরের ৮০ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থিত। লেবানন একে নিজের বলে দাবি করে।

শেখ নাঈম কাসেম বলেন, ইসরাইলের এই তৎপরতার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা দরকার। তার সংগঠন সরকারের প্রতি বিষয়টি নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও চূড়ান্ত সময়সীমা ঘোষণার আহ্বান জানিয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে যদি বৃহত্তর সংঘাত সৃষ্টি হয়, তাহলেও তাতে প্রস্তুত রয়েছে হিজবুল্লাহ।।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে

news