ইসরায়েলি হামলাকে ‘গণহত্যা’ বলায় নিউইয়র্কে মুসলিম নার্স বরখাস্ত

সন্তান হারানো শোকাহত মায়েদের সাথে কাজের জন্য পুরষ্কার গ্রহণের বক্তৃতায় গাজায় ইসরায়েলের যুদ্ধকে গণহত্যা বলায় নিউইয়র্ক সিটির এনওয়াইইউ ল্যাঙ্গোন হেলথ হাসপাতাল হেসেন জাবর নামের ওই মুসলিম নার্সকে বরখাস্ত করেছে। 

ফিলিস্তিনি আমেরিকান নার্স হেসেন জাবর বক্তৃতার তার কাজের সঙ্গে গাজার মায়েদের কষ্ট সম্পর্কে কথা বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, পুরস্কারটি তার কাছে ‘একান্তই ব্যক্তিগত’।

গাজায় বর্তমান গণহত্যার সময় আমার দেশের নারীরা অকল্পনীয় ক্ষতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দেখে আমার বেদনা হয়।’ হেসেন জাবর তার বক্তৃতার ভিডিওটি অনলাইনে পোস্ট করেছেন। 

হেসেন জাবর সামাজিক মাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে জানিয়েছেন, তাকে গত ৭ মে পুরস্কৃত করা হয়েছিল এবং সেসময় তিনি ওই মন্তব্য করেছিলেন। পরে একই মাসের শেষের দিকে তাকে চাকরিচ্যুতির নোটিশ দেওয়া হয়।

ওই হাসপাতালের একজন মুখপাত্র বৃহস্পতিবার দাবি করেছেন, ‘বিভাজনমূলক ইস্যুতে কর্মক্ষেত্রে নিজের মতামত প্রকাশ না করতে’ প্রসববেদনা ও ডেলিভারি নার্স হেসেন জাবরকে পূর্বে সতর্ক করা হয়েছিল।’

হেসেন জাবর নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে পুরস্কার গ্রহণের সময় দেওয়া তার ভাষণকে সমর্থন করে বলেছেন, যুদ্ধ সম্পর্কে বক্তব্য দেয়া যে কাজের জন্যে তাকে পুরস্কার দেয়া হয়েছে তার সঙ্গে খুবই প্রাসঙ্গিক। 

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ইসরায়েলের লাগাতার হামরায় ৩৬ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।  সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news