নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে যে কারণে তলব করল ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নরওয়ের পার্লামেন্ট স্পিকারের হস্তক্ষেপমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে তেহরানে নিযুক্ত নরওয়ের রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে।

ইরানে হিজাব আইন অমান্য করার কারণে আটক তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনায় যখন দেশবাসী শোকাহত এবং তারা ফরেনসিক তদন্ত রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছেন তখন রাজধানী তেহরানসহ কিছু শহরে বেআইনি প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।  প্রতিবাদকারীরা সরকারি ও বেসরকারি সম্পদ ভাঙচুরসহ নানারকম নাশকতামূলক তৎপরতা চালিয়েছে।

বিক্ষোভকারীরা অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি এবং ত্রাণকর্মীদের বহনকারী মাইক্রোবাসে হামলা চালাতেও দ্বিধা করেনি।  হামলায় এখন পর্যন্ত ৬১টি অ্যাম্বুলেন্স ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং চিকিৎসক দলের বেশ কয়েক সদস্য আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এ অবস্থায় কিছু পশ্চিমা কর্মকর্তা ইরানের চলমান ঘটনাপ্রবাহের ব্যাপারে অসত্য তথ্যের ওপর ভিত্তি করে নানা ধরনের বক্তব্য দিচ্ছেন। নরওয়ের পার্লামেন্ট স্পিকার মাসুদ কারাখানি ইরানে নাশকতামূলক তৎপরতায় জড়িত কথিত বিক্ষোভকারীদের পক্ষ অবলম্বন করে বক্তব্য দিয়েছেন।

তার বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাতে আজ (রোববার) তেহরানে নিযুক্ত নরওয়ের রাষ্ট্রদূত সিগওয়াল হাওগাকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়। এ সময় রাষ্ট্রদূতকে ইরানের পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলা হয়, নরওয়ের পার্লামেন্ট স্পিকারের বক্তব্যকে ইরানের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে সরাসরি হস্তক্ষেপ হিসেবে দেখছে তেহরান।

সাক্ষাতে নরওয়ের রাষ্ট্রদূত ইরানের এ প্রতিবাদের কথা দ্রুততম সময়ের মধ্যে অসলোকে জানানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।
খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে news