কূটনীতিক সম্পর্ক: ইউক্রেনের সিদ্ধান্তে দুঃখ প্রকাশ করল ইরান

ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক কমিয়ে আনার ইউক্রেনীয় সিদ্ধান্তে দুঃখ প্রকাশ করেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানয়ানি । তিনি বলেছেন, পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলোতে প্রকাশিত অনির্ভরযোগ্য তথ্যের ভিত্তিতে ইউক্রেন সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার এক বিবৃতিতে রাশিয়াকে ইরান ড্রোন সরবরাহ করেছে বলে অভিযোগ তুলে তেহরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক উল্লেখযোগ্য মাত্রায় কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে। একইসঙ্গে কিয়েভ থেকে ইরানের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত জানায় ইউক্রেন সরকার।  কিয়েভ বলেছে, ইরানের ‘অবন্ধুসুলভ’ আচরণের কারণে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ইউক্রেন অভিযোগ করছে, রাশিয়ার কাছে ইরান কম্ব্যাট ড্রোন বিক্রি করেছে।

এ সম্পর্কে কানয়ানি বলেছেন, রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘর্ষে ইরান নিরপেক্ষ অবস্থান নিয়েছে এবং শান্তিপূর্ণ উপায়ে এ সংঘাত নিরসনের আহ্বান জানিয়ে এসেছে। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিগত কয়েক মাসে একাধিকবার রাশিয়া ও ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে সাক্ষাতের পাশাপাশি বহুবার টেলিফোনে কথা বলেছেন। এসব সাক্ষাৎ ও আলাপে চলমান সংঘাত বন্ধ করার চেষ্টা চালিয়েছে ইরান। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, ইউক্রেনের সঙ্গে তার দেশের সম্পর্ক নস্যাত করার জন্য তৃতীয় পক্ষগুলো যে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে কিয়েভের উচিত তাতে সায় না দেয়া।
খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে news