মালিয়েশিয়ায় হচ্ছে ঝুলন্ত পার্লামেন্ট; জামানত হারিয়েছেন মাহাথির

মালয়েশিয়ায় তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে কোনো দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় দেশটিতে ঝুলন্ত পার্লামেন্ট সৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। তবে নির্বাচনী ফলাফলে এ পর্যন্ত বিরোধীদলীয় নেতা আনোয়ার ইব্রাহিমের রাজনৈতিক জোট এগিয়ে রয়েছে। তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন।

আনোয়ারের পাকাতান হারান বা অ্যালায়েন্স অব হোপ ২২২ আসনের পার্লামেন্টে ৮২টি আসন নিশ্চিত করেছে। আর মহিউদ্দিন ইয়াসিনের পেরিকাতান ন্যাশনাল বা ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স পেয়েছে ৭৩টি আসন। প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুবের ইউনাইটেড মালয়স ন্যাশনাল অর্গ্যানাইজেশন বা ইউএমএনও পার্টির নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন বড় ধরনের বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে। তারা মাত্র ৩০টি আসন পেয়েছে।

ব্রিটেনের কাছ থেকে মালয়েশিয়া স্বাধীনতা লাভের পর থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন দেশ পরিচালনা করেছে। তারা এবার বিপর্যয়ে পড়লেও মহিউদ্দিন ইয়াসিনের সঙ্গে জোট গঠন করে এখনো ক্ষমতায় থাকতে পারে। আনোয়ার ও মহিউদ্দিন দুজনই দাবি করেছেন যে, তাদের জোটের সরকার গঠন করার মতো পর্যাপ্ত সমর্থন রয়েছে। তবে তারা কাদের সাথে জোট গঠন করবেন, তা প্রকাশ করেননি।

অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক মনে করছেন, আনোয়ারকে ঠেকাতে মহিউদ্দিনের পেরিকাতান ন্যাশনাল ইসমাইলের জোটকে সমর্থন দিতে পারে। তবে আনোয়ার বলেছেন, তিনি মালয়েশিয়ার রাজা আল-সুলতান আবদুল্লাহর কাছে তার সমর্থনের বিষয়টি জানাবেন। তিনি একসময় মাহাথিরের উত্তরসূরি হওয়ার সম্ভাবনা সৃষ্টি করেছিলেন। তারপর নানা অপবাদ নিয়ে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হন তবে তিনি আবার মারয়েশিয়ার রাজনীতিতে শক্তভাবে ফিরে এসেছেন। তার দল বা জোট মারয়েশিয়ায় ইসলামি শরীয়া আইন চালু করতে চান। এদিকে, মালয়েশিয়ায় এবারের নির্বাচনে অপ্রত্যাশিত খবর হলো সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের হেরে যাওয়া। পুরো রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে এবারই তিনি নিজ আসনে হারলেন। ওই আসনে ৫ প্রার্থীর মধ্যে তিনি চতুর্থ হয়েছেন। জয়ী হয়েছেন মহিউদ্দিনের প্রার্থী। মাহাথির মোহাম্মদ শুধু পরাজিতই হননি, তিনি রীতিমতো জামানত হারিয়েছেন।
খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে

news