রোববার ভারত-শ্রীলঙ্কা এশিয়া কাপ ফাইনাল

কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে রোববার অনুষ্ঠিত হবে ষোড়শ এশিয়া কাপ ক্রিকেটের রুদ্ধশ্বাস ফাইনাল। মুখোমুখি হবে ভারত ও স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। বৃষ্টিপাতের  সম্ভাবনা থাকা স্বত্বেও ম্যাচটি ঘিরে ক্রিকেটামোদীদের আগ্রহের সীমা নেই। বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় মাঠে গড়াবে দিবা-রাত্রির এই ম্যাগা ফাইনাল। 

কলম্বোর আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, রোববার বজ্রপাতসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা সকালে ৭৭ শতাংশ এবং সন্ধ্যা-রাতে ৬৯ শতাংশ। বার বার বৃষ্টিতে ম্যাচের ধরাবাহিকতা নষ্ট হতে পারে। যদি রোববার কোনোভাবেই দু’দল অন্তত ২০ ওভার না খেলতে পারে, তা হলে সোমবার রিজার্ভ ডে-তে খেলা হবে। দু’দিনই বৃষ্টিতে খেলা সম্পূর্ণ না করা গেলে দু’দলকে যুগ্ম ভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে। 

বাংলাদেশ ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সময় চোট পাওয়ায় ফাইনালে খেলতে পারবেন না ভারতের অক্ষর প্যাটেল। তার বদলে দলভুক্ত হয়েছেন স্পিন অলরাউন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দর। 

এবারের আসরে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের প্রথম ম্যাচ বৃষ্টিতে পন্ড হয়, দ্বিতীয় ম্যাচে তারা ১০ উইকেটে নেপালকে হারায়। সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ভারত ২২৮ রানে পাকিস্তানকে ও দ্বিতীয় ম্যাচে ৪১ রানে শ্রীলঙ্কাকে পরাজিত করে। তবে শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে ৬ রানে হেরে যায় ভারত। আর শ্রীলঙ্কা বাংলাদেশকে প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেটে ও দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানকে ২ রানে পরাজিত করে। সুপার ফোরে লঙ্কানরা প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে ২১ রানে এবং দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে ২ উইকেটে হারিয়ে দেয়। 

ভারত ৭ বার এশিয়া কাপের শিরোপা জিতেছে। আর শ্রীলঙ্কা জিতেছে ৬ বার। ফাইনালের পরিসংখ্যান অনুযায়ীও এগিয়ে রয়েছে রোহিতরা। এশিয়া কাপ শুরু হওয়া থেকে দুই দল এ পর্যন্ত ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছে মোট ৮ বার। তাতে ভারত জিতেছে ৫ বার এবং শ্রীলঙ্কা জিতেছে ৩ বার। ১৯৮৪, ১৯৮৮, ১৯৯০-৯১, ১৯৯৫, ২০১০, ২০১৬ এবং ২০১৮ এশিয়া কাপ জেতে ভারত। শ্রীলঙ্কা কাপ জেতে ১৯৮৬, ১৯৯৭, ২০০৪, ২০০৮, ২০১৪ এবং ২০২২ অর্থাৎ গত আসর।

দুদলের সর্বশেষ ফাইনাল হয় ২০১০ সালে। সেবার আয়োজক শ্রীলঙ্কাকে ৮১ রানে হারিয়ে শিরোপা পায় ভারত।

ওয়ানডেতে দুই দেশের মুখোমুখি হওয়া মোট ১৬৬টি ম্যাচের মধ্যে ভারত ৯৭টি এবং শ্রীলঙ্কা ৫৭টিতে জিতেছে। ১২টি ম্যাচে জয়-পরাজয় হয়নি। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news