শচীন ও কোহলির পথ ধরে হাঁটবে শুভমান গিল: সাবা করিম

শচীন টেন্ডুলকারের একশো সেঞ্চুরির রেকর্ডকে একসময় ধরা-ছোঁয়ার বাইরে ভাবা হতো। তবে বিরাট কোহলি সেই পথে যেভাবে দৌঁড়াচ্ছেন তাতে শচীনকে ছুঁয়ে ফেললেও তা অস্বাভিক কিছু হবে না। এই দুই কিংবদন্তী ব্যাটারের এমন মধুর লড়াই হয়তো কোহলির অবসরের পর থেমে যাবে। এরপর? অনেকের ধারণা শুভমান গিল হতে পারেন ভারতের ব্যাটিংয়ের পরবর্তী শচীন কিংবা বিরাট। ভারতের সাবেক ব্যাটার সাবা করিমের ধারণা, কোহলি-শচীনের পথ ধরেই হাঁটছেন গিল, তবে তাদের সেই রেইসে যোগ দিতে গিলকে এখনও লম্বা পথ পাড়ি দিতে হবে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকেই নিজের ব্যাটিং প্রতিভার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন গিল। বিশেষ করে সাদা পোশকের ক্রিকেটে ইতোমধ্যে দলের নিয়মিত সদস্য হয়ে উঠেছেন এই ওপেনার। খুব একটা পিছিয়ে নেই রঙিন পোশাকেও। সম্প্রতি ওয়ানডেতে যে কয়টা সিরিজে সুযোগ পেয়েছেন তা দুই হাত ভরে কাজে লাগিয়েছেন এই তরুণ ব্যাটার।
সদ্য সমাপ্ত নিউজিল্যান্ড সিরিজে রঙিন পোষাকে ব্যাট হাতে রঙ ছড়িয়েছেন গিল। তিন ম্যাচের এই সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে রীতিমতো ঝড় তুলেছিলেন তিনি। ১৪৯ বল খেলে ১৯ বাউন্ডারি আর ৯ ছক্কায় ২০৮ রান করেছিলেন এই তরুণ ব্যাটার। এই ইনিংস খেলার পথে বেশ কিছু রেকর্ডও গড়েন। ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি করার কীর্তি নিজের দখলে নেন গিল।

এরপর দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অপরাজিত ৪০ রান এসেছিল গিলের ব্যাট থেকে। আর সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে আবারও সেঞ্চুরির দেখা পান তিনি। সবমিলিয়ে তিন ম্যাচের এই সিরিজে ১৮০ গড়ে ৩৬০ রান করেন তিনি।

গিলের ব্যাটিং প্রতিভা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বিরাট-শচীনের যোগ্য উত্তরসূরী উল্লেখ্য করে সাবা বলেছেন, তার টেম্পারমেন্ট খুবই ভালো। বিরাট কোহলি এবং শচীন টেন্ডুলকার যে লিগ্যাসি তৈরী করেছে গিল তা ধরে রাখবে।

এনবিএস/ওডে/সি

news