সিরিয়ায় সামরিক স্থাপনায় আবার মার্কিন বিমান হামলা, নিহত ৯

 সিরিয়ায় ইরান সমর্থিত মিলিশিয়াদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সামরিক স্থাপনায় বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এতে ৯ জন নিহত হয়েছেন। প্রাণহানির বিষয়টি অবশ্য নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি। মার্কিন সেনাদের ওপর হামলার প্রতিশোধ নিতে এই হামলা চালানো হয়েছে দাবি করা হয়েছে।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন জানিয়েছেন, সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলে তাদের বিমান বাহিনী গত বুধবার যে স্থাপনাটিতে হামলা চালিয়েছে সেটি অস্ত্রশস্ত্র মজুদ কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হতো।

গত দুই সপ্তাহের মধ্যে এটি সিরিয়ায় ইরান সংশ্লিষ্ট অবস্থানকে লক্ষ্য করে দ্বিতীয় মার্কিন বিমান হামলার ঘটনা। মূলত মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন বাহিনীর ওপর হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করে থাকে ওয়াশিংটন।

অস্টিন এক বিবৃতিতে দাবি করেছেন, ‘ইরানের ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পস (আইআরজিসি) এবং সহযোগী গোষ্ঠীগুলোর ব্যবহৃত পূর্ব সিরিয়ার একটি স্থাপনায় মার্কিন সামরিক বাহিনী আত্মরক্ষামূলক হামলা চালিয়েছে। দুটি মার্কিন এফ-১৫ যুদ্ধবিমান ওই হামলা চালায়।

তিনি আরও দাবি করেছেন, ‘আইআরজিসি-কুদস ফোর্সের সহযোগীরা ইরাক এবং সিরিয়ায় মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক যে আক্রমণ চালিয়ে আসছে। আর তার প্রতিশোধ নিতে এ নির্ভুল আত্মরক্ষামূলক হামলা চালানো হয়েছে। নিজেদের সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় আরও ব্যবস্থা নিতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র।

এর আগে গত অক্টোবরের শেষের দিকে সিরিয়ায় ইরানের দু’টি সামরিক স্থাপনায় হামলা চালায় মার্কিন বিমান বাহিনী। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নির্দেশেরই এই হামলা চলানো হয় বলে সেসময় এক সংবাদ সম্মেলনে জানান প্রতিরক্ষামন্ত্রী অস্টিন।সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news