প্রকৃতির ছোঁয়ায় কমে স্ট্রোকের আশঙ্কা

প্রতি বছরই সারাবিশ্বে অসংখ্য মানুষের মৃত্যু হয় স্ট্রোকের কারণে। একসময় মনে করা হতো যে, বয়স বাড়লে স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে। কিন্তু সেই ধারণা একদমই ভুল। বর্তমানে অল্প বয়সেও অনেকেই স্ট্রোকে প্রাণ হারিয়েছেন।সম্প্রতি স্ট্রোক প্রতিরোধে আরও একটি দিক উন্মোচিত হলো। এক দল গবেষকের দাবি, প্রকৃতির কাছাকাছি থাকতে পারলে অনেকটাই কমে স্ট্রোকের ঝুঁকি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জীবনচর্চা আর খাদ্যাভ্যাসে বদল আনতে পারলে অনেকটাই কমানো যেতে পারে প্রাণঘাতী এই রোগের ঝুঁকি। সম্প্রতি স্ট্রোক প্রতিরোধে আরও একটি দিক উন্মোচিত করলেন বিজ্ঞানীরা। স্পেনের এক দল গবেষকের দাবি, প্রকৃতির কাছাকাছি থাকতে পারলে অনেকটাই কমে স্ট্রোকের ঝুঁকি।

স্পেনের কাতালোনিয়ার গবেষকরা ৩৫ লক্ষেরও বেশি মানুষের চিকিৎসা সংক্রান্ত নথিপত্র খতিয়ে দেখেছেন। গবেষণা বলছে, যে ব্যক্তিরা অরণ্য কিংবা ঘন গাছপালা রয়েছে এমন প্রাকৃতিক পরিবেশের ৩০০ মিটারের মধ্যে বসবাস করেন তাঁদের ক্ষেত্রে স্ট্রোকের ঝুঁকি প্রায় ১৬ শতাংশ কম।

কিন্তু কেন এমন হয়? নিশ্চিতভাবে বলতে না পারলেও বিশেষজ্ঞদের ধারণা, প্রকৃতির পরশ একাধিক উপায়ে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে সহায়তা করে। বিশেষ করে মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে ও চাপ কমাতে চারপাশে গাছপালা থাকা খুবই জরুরি। পাশাপাশি আসেপাশে বাগান থাকলে মানুষের মধ্যে হাঁটাহাঁটির উৎসাহও বৃদ্ধি পায়। যা শারীরিক ভাবেও ভাল রাখে শরীর। পাশাপাশি, গাছপালা বেশি থাকলে পরিবেশ দূষণের মাত্রা কম থাকে। গবেষকদের দাবি, পরিবেশ দূষণের মাত্রা বাড়লে বেড়ে যেতে পারে স্ট্রোকের আশঙ্কাও। news