ত্বক ও চুলের সৌন্দর্যে চা-কফি

এক কাপ গরম চা কিংবা এক মগ গরম গরম কফি হলে সারাদিন চাঙা থাকি আমরা। অনেকে রাত জেগে কাজ করতে হলেও সঙ্গী করেন প্রিয় পানীয় চা- কফিকে। কাজ শুরু করায় এনার্জি আসে। চা কিংবা কফি কি শুধমাত্র পাণীয় হিসেবেই ব্যবহার হয়? চুল এবং ত্বকের ক্ষেত্রে চা-কফি ব্যবহার করা হয়। চা-কফি আমাদের ত্বক এবং চুলের স্বাস্থ্যও বাড়িয়ে সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

কফি চুল পড়া রোধ করে, চুল ঘন ও মসৃণ করে। নতুন চুল গজাতেও সাহায্য করে। চুলের রং হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন কফি। কফি দিয়ে চুল ধুলে তা চুলের দ্রুত বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

*** কফি ত্বকের জন্য কতটা জরুরি: হয়তো আমরা অনেকেই খেয়াল করে দেখিনি যে, যে সমস্ত প্রসাধনী দ্রব্য ডার্ক সার্কল রিমুভ করতে ব্যবহার করা হয়, সেই সমস্ত দ্রব্যে কফি থাকে। কফি শুধু আমাদের চোখের নিচের কালি দূর করতেই সাহায্য করে না, চোখের নিচে রক্ত জমাট বাধতেও দেয় না। এ তো গেল চোখের কথা। ত্বককে সুস্থ, সুন্দর, টানটান রাখতেও কফি সাহায্য করে। কফি ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।

*** কফি চুলের জন্য কতটা উপকারী: কফিতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্টের উপাদান রয়েছে। যা চুলকে ড্যামেজ হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে এবং চুলের ভাঙল রোধ করে। এর পাশাপাশি চুলের বৃদ্ধিও ঘটায় কফি। হেয়ার প্যাকেও কফি ব্যবহার করা যায়। বিভিন্ন বিউটি পার্লারেও হেনা কিংবা অন্যান্য প্রোডাক্টের সঙ্গে কফি ব্যবহার করা হয়। চুলে কফি ব্যবহার করলে চুলের জেল্লা বাড়ে।

*** ত্বকের জন্য চা-এর উপকারিতা: গ্রিন টি আমাদের শরীরের অতিরিক্ত ওজন কমানোর পাশাপাশি ত্বককে ড্যামেজের হাত থেকে রক্ষা করে। চা আমাদের ত্বকের মরা কোষগুলিকে পুনরুজ্জীবিত করা, ত্বকে সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মির হাত থেকে রক্ষা, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে সাহায্য করে। স্কিন টোনার হিসেবেও চা ব্যবহার করা হয়। ফেস মাক্স হিসেবে যদি চা ব্যবহার করেন, তাহলে তা আপনার ত্বকের অবাঞ্ছিত টক্সিন দূর করতে সাহায্য করে।

*** চুলের জন্য চা-এর উপকারিতা: চুলের জেল্লা বাড়াতে সাহায্য করে চা। হেনা করার সময়ে আমরা প্যাকে চা ব্যবহার করি। গ্রিন টি খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। চা-এ ভিটামিন সি, ভিটামিন ই এবং প্যান্থেনল রয়েছে। যা চুলের বৃদ্ধি এবং চুলকে আরও মোলায়েম করতে সাহায্য করে।

চুলের জেল্লা বাড়াতে কীভাবে ব্যবহার করবেন চা?

যেভাবে প্যাক বানাবেন: প্রথমে ২ টেবিল চামচ গ্রাউন্ড কফি ও ১ কাপ জল নিন। এবার ১ কাপ কফি তৈরি করে তা ঠাণ্ডা হতে দিন। মাথায় ভালো করে শ্যাম্পু করে মাথা মুছে, চুল থেকে অতিরিক্ত পানি ঝরিয়ে ফেলুন। এরপর মাথার ত্বকে এবং চুলে ঠাণ্ডা কফি ঢালুন। পাঁচ মিনিট ম্যাসাজ করুন। ৩০ মিনিট চুল ঢেকে রাখুন। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে ভালো করে চুল ধুয়ে শুকিয়ে নিন। news