শেষ বলের রোমাঞ্চে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে খুলনার হার

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপিএলে যাত্রা শুরু হয়েছিলো হার দিয়ে। সেই কুমিল্লা যেনো  একের পর এক জয় নিয়ে মুক্ত বিহঙ্গের মতো উড়ছে। শনিবার সিলেট স্টেডিয়ামে নিজেদের ৬ষ্ঠ ম্যাচে অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে জয়ের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছে। এটা কুমিল্লার টানা পঞ্চম জয়। শনিবার খুলনা টাইর্গাসকে ৪ রানে হারিয়েছে তারা। খুলনা শুরু থেকে দুর্দান্ত লড়াই করলেও তীরে এসে তরী ডুবে তাদের। শেষ বলের লড়াইয়ে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের সঙ্গে পেরে ওঠেননি খুলনা অধিনায়ক ইয়াসির আলী রাব্বি।

সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে রান তাড়ায় নেমে ১৪ রানে প্রথম উইকেট হারিয়েছিল খুলনা টাইগার্স। তামিম ইকবালকে ১১ রানে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন নাসিম শাহ। অপর ওপেনার অ্যান্ডি বালব্রিনি ৩৮ রান করেছেন। তিনে নেমে শাই হোপ করেন ৩২ বলে ৩৩ রান। ম্যাচের পরিস্থিতি তখনো কুমিল্লার দিকেই ঝুঁকে ছিল।

কিন্তু মাহমুদুল হাসান জয়ের ১৩ বলে ২ চার ২ ছক্কায় ২৬ রানের ঝড় সব এলোমেলো করে দেয়। তাকে ফিরিয়ে ফের ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেন মোসাদ্দেক। শেষদিকে খুলনা অধিনায়ক ইয়াসির আলী রাব্বি চেষ্টা করেছেন। শেষ বলে দরকার ছিল ৬ রানের। মোসাদ্দেকের বলে এক রানের বেশি নিতে পারেননি ইয়াসির। তিনি অপরাজিত থাকেন ১৯ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ৩০* রানে। ৪ রানে ম্যাচ জিতে নেয় কুমিল্লা।

এর আগে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে হেরে আগে ব্যাট করে র্নিধারিত ২০ ওভারে ২ উইকেটে ১৬৫ রান করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। উদ্বোধনী জুটিতে ৬৫ রান তুলেন লিটন দাস ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। এর মধ্যে ৫০ রানই লিটনের। তার বিদায়ের পর ৬০ রানের জুটি গড়েন রিজওয়ান ও জনসন চার্লস।

এনবিএস/ওডে/সি

news