বোয়ালমারীতে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে মনি বেগম নামে  এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে বোয়ালমারী থানা পুলিশ। মনি বেগম   উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নের কমলেম্বরদী গ্রামের মো. লিয়াকত হোসেন কালন মিয়ার মেয়ে।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) বিকেল ৪টার দিকে বোয়ালমারী থানা পুলিশ  উপজেলার কমলেশ্বরদী গ্রাম থেকে লাশ  উদ্ধার করে বোয়ালমারী থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দাদপুর ইউনিয়নের কমলেশ্বরদী গ্রামের সেলিম কাজীর ছেলে হুমায়ুন কাজী তার দ্বিতীয় স্ত্রী মনি বেগমকে নিয়ে একই গ্রামের মৃত শাহজাহান মিয়ার বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

শনিবার সকাল ৯টার দিকে হুমায়ুনের দ্বিতীয় স্ত্রীর (মনি বেগম) ছেলে মো. সিয়াম (১২) ভাড়া বাসায় এসে দেখে তার মা মৃত অবস্থায় ঘরের মধ্যে পড়ে আছে। এ সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে মনি বেগমকে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ বিকেল ৪টার দিকে কমলেশ্বরদী গ্রাম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে বোয়ালমারী থানায় নিয়ে আসে।

দাদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন বলেন, হুমায়ুন তার দ্বিতীয় স্ত্রী মনি বেগমকে নিয়ে কমলেশ্বরদী গ্রামের শাহজাহান মিয়ার বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকতেন। চলতি মাস থেকে ওই বাড়িতে ভাড়া হিসেবে বসবাস করছে। হুমায়ুন বর্তমানে কোনো কাজকর্ম করতেন না বলে জেনেছি।

বোয়ালমারী থানা সাব ইনস্পেক্টর কামরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।ময়না তদন্তের পর জানা যাবে  এটি হত্যা না আত্মহত্যা। তবে ঘটনার পর থেকে তার স্বামী হুমায়ন পলাতক রয়েছে।

news