মহারাষ্ট্র সংকট আরও তীব্র, মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনুপস্থিত ৮ মন্ত্রী

মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) সরকারের সংকট আরও তীব্র হল। মন্ত্রিসভার (Cabinet) বৈঠকে হাজির হননি আট মন্ত্রী। তাঁদেরও হদিশ মিলছে না।

মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে (Uddhav Thackeray) কোভিড আক্রান্ত। গৃহবন্দি থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে মন্ত্রিসভার বৈঠকে অংশ নেন উদ্ধব। দেখা যায় আট মন্ত্রী নেই ক্যাবিনেট বৈঠকে। শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত ইঙ্গিত দিয়েছেন, পরিস্থিতি মোটেই ভাল নয়। তেমন হলে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ইস্তফা দিয়ে বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করতে পারেন।

একদিকে একনাথ শিন্ডে ৪৫ বিধায়ককে নিয়ে অসমে চলে গিয়েছেন। অন্যদিকে উদ্ধবের পক্ষে এখনও যে সমর্থন রয়েছে সেই বিধায়কদের নিয়ে মুম্বইয়ে পৃথক শিবির তৈরি হয়েছে। এদিন বিকেল পাঁচটায় বাকি বিধায়কদের সেখানে ডাকা হয়েছে।

এই প্রশ্নে শিবসেনা নেতারাও দিশাহারা। সকালেই অবশ্য সঞ্জয় রাউত ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন, উদ্ধব ইস্তফা দিতে পারেন।

দু’দিন ধরে মারাঠা মুলুকের রাজনৈতিক পরিস্থিতি টলমল করছে। শিবসেনা বিধায়ক একনাথ শিন্ডে দাবি করেছেন বিজেপির সঙ্গে পুরনো সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করুক শিবসেনা। তিনি রাজ্যের ৪৬ জন বিধায়ককে সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার গুজরাতে গিয়েছিলেন। সেখানেই তাঁকে ফোন করেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে স্বয়ং।

সূত্রের খবর, একনাথকে দলে ফিরে আসার অনুরোধ জানিয়েছিলেন উদ্ধব। তারপরেই মাঝরাতের ফ্লাইটে তিনি আরেক বিজেপি শাসিত রাজ্য অসমে চলে আসেন। তাঁর সঙ্গে আসেন ওই ৪৬ জন বিধায়ক। যাঁদের মধ্যে শিবসেনার বিধায়ক রয়েছেন ৪০ জন, বাকি ৬ জন নির্দল। ৪৬ বিধায়কের সমর্থন হারালে মহারাষ্ট্রে শিবসেনার জোট সরকার টিকে থাকা মুশকিল।খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২২/একে news