যারা মহানবী(সা.) সম্পর্কে অপবাদ দেয় তাদের ওপর বুলডোজার চলেনি : শফিকুর রহমান বার্ক

ভারতের উত্তর প্রদেশে সমাজবাদী পার্টির নেতা ডাঃ শফিকুর রহমান বার্ক এমপি বলেছেন, দেশের আইনে বুলডোজারের কোনো উল্লেখ নেই। বুলডোজার ব্যবহার করা হচ্ছে শুধুমাত্র মুসলমানদের ভয় দেখানোর জন্য। আজ (বুধবার) গণমাধ্যমে তার ওই মন্তব্য প্রকাশ্যে এসেছে।

ডা. শফিকুর রহমান বার্ক এমপি তার বক্তব্য নিয়ে প্রায়ই আলোচনায় থাকেন। বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশে যোগী আদিত্যনাথ সরকারের বুলডোজার অ্যাকশন নিয়ে  আলোচনার বিষয়বস্তু হয়েছে। এবার ওই ইস্যুতে সম্বলের সমাজবাদী পার্টির সংসদ সদস্য ডাঃ শফিকুর রহমান বার্ক এ সম্পর্কে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন,  মুসলমানদের বড় বড় বাড়ি বুলডোজ করা হয়েছিল এবং মুসলমানদেরকে বুলেটের লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছিল। কিন্তু আমাদের নবীর (সা.)-এঁর মর্যাদা যারা ক্ষুণ্ণ করেছে তাদের বিরুদ্ধে বুলডোজার চলেনি বা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণও করা হয়নি। এতে সরকারের দ্বৈত নীতি ও দ্বৈত মানসিকতার পরিচয় পাওয়া যায়।   

ডাঃ শফিকুর রহমান বার্ক এমপি প্রশ্ন করেছেন, আমাদের মুখ্যমন্ত্রী যোগী সবার উপর বুলডোজার ব্যবহার করবেন কি না? আপনারা সরকার চালাচ্ছেন, তাহলে জনগণকে ঠকাচ্ছেন কেন? তিনি বলেন, সব মানুষের সঙ্গে সমান আচরণ করা উচিত। মুসলমানদের উপর এত অত্যাচার হয়েছে যে তাদের নবীর (সা.) মর্যাদা সম্পর্কে  বাজে কথা বলা হয়েছে।      

ডাঃ শফিকুর রহমান বার্ক এমপি বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নূপুর শর্মার নাম না করে বলেন, আপনারা তাকে গ্রেফতার করেননি, যার কারণে এসব হয়েছে। কেন তার বাড়িতে বুলডোজার চালানো হয়নি? যা সারা বিশ্বকে নাড়া দিয়েছে। এতবড় অপরাধীর বিরুদ্ধে সরকার কেন কোনো ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত ছিল না?   

ডাঃ শফিকুর রহমান বার্ক এভাবে নাম না নিয়ে মহানবী (সা.) সম্পর্কে সাবেক বিজেপি মুখপাত্র নুপুর শর্মার আপত্তিকর  বক্তব্যকে টার্গেট করেছেন এবং তিনি তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ার জন্য উত্তর প্রদেশে ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন।।খবর পার্সটুডে /এনবিএস/২০২২/একে news