মালিককে ফ্ল্যাটে ঢুকতে দিচ্ছিলেন না ভাড়াটে, সিঁড়িতেই দশ দিন কাটিয়ে ঘরে ঢুকলেন দম্পতি

 বাড়ি নিজের (Land Lord), কিন্তু থাকতে পারছেন না বৃদ্ধ দম্পতি (Aged Couple)। বাড়ি দখল করে বসে আছেন (tenant) অন্য কেউ। সারারাত কাটাতে হল সিঁড়িতে। তাও এক দিন, দুই দিন নয়, টানা দশটা দিন, দশটা রাত। অবাক কান্ড নয়ডায়।  

পেট্রোকেমিক্যাল কর্পোরেশনের কর্মী সুনীল কুমার। কর্মসূত্রে স্ত্রী রাখি গুপ্তকে নিয়ে থাকতেন মুম্বইতে। অবসরের পর নয়ডাতে থাবেন বলে  সেক্টর ১৬বি তে শ্রী রাধা স্কাই গার্ডেন সোশ্যাইটির ১৫ তলায় একটি ফ্ল্যাট কিনে রেখেছিলেন তাঁরা।

যতদিন মুম্বই থেকে নয়ডা না আসছেন, ততদিন ওই ফ্ল্যাট ভাড়া দেবেন বলে ঠিক করেন দম্পতি। এক মহিলাকে তাঁর দুই বাচ্চাসহ ফ্ল্যাটটা দিয়েও দেন ভাড়াতে। ১১ মাসের চুক্তিতে ভাড়া দিয়েছিলেন ওই ফ্ল্যাট। চুক্তির সময় শেষ হওয়ার কিছুদিন আগেই ভাড়াটেকে জানিয়েও ছিলেন দম্পতি। তখন ভাড়াটে মহিলা জানান, আরও একমাস পর তিনি বাড়ি ছাড়তে পারবেন। তাতেই রাজি হয়ে যান দম্পতি।

কিন্তু মুম্বই থেকে ফিরে নয়ডার ফ্ল্যাটে এসে দেখেন তখনও ঘর ছাড়েননি ভাড়াটে। ভাড়াটে সেই মহিলা পরিষ্কার মুখের উপর জানিয়ে দেন তিনি বাড়ি ছাড়বেন না।

দম্পতি বলেন, তাঁদের ঘর না ছাড়লে সিঁড়িতেই বসে থাকবেন তাঁরা। করেনও তাই। টানা ১০ দিন ধরে সিঁড়িতেই কাটান তাঁরা। এরপর পুলিশ এসে তাঁদের বাড়ি ফিরে পেতে সাহায্য করেন। খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২২/একে news