উত্তর প্রদেশে বোমা মেরে মসজিদ উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি, গ্রেফতার ১, পুলিশি তদন্ত শুরু

ভারতের উত্তর প্রদেশের বেরেলিতে নগরীর জামে মসজিদ বোমা দিয়ে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে এবং ইমাম খুরশিদ আলমকে গুলি করার হুমকি দেওয়া হয়েছে। গতকাল (বুধবার) সকালে মসজিদ সংলগ্ন দেয়ালে লাগানো হাতে লেখা হুমকি পোস্টারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।    

মসজিদের ব্যবস্থাপক ডাঃ আব্দুল নাফীস খানের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এফআইআর দাখিল করে তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশ এ ব্যাপারে সামাদ নামে একজনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।       

এদিকে, ওই হুমকি পোস্টার নিয়ে পুলিশ প্রশাসন সতর্ক হয়ে উঠেছে এবং দ্রুত পুলিশ কর্মকর্তারা বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই হুমকি পোস্টারটি দখলে নেয় এবং আশেপাশের এলাকায় লাগানো সিসিটিভি ফুটেজ স্ক্যান করতে শুরু করেছে।   

হুমিকি চিঠিতে বলা হয়, যে কোনো জুম্মা বারে মসজিদে বোমা রাখা হবে। এই ইমামকে সরিয়ে দিতে হবে, মসজিদ থেকে দূরে থাকতে হবে, খুরশিদ আলমকে সরিয়ে দিতে হবে, না হলে গুলি করা হবে।  

মসজিদটির ইমাম খুরশীদ আলম বলেন, কারো সঙ্গে তার কোনো শত্রুতা নেই, কোনো বিরোধ নেই, তা সত্ত্বেও এ ধরনের পোস্টার লাগিয়ে পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছে। তিনি বলেন, শহরের পরিবেশ নষ্ট করার জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে এই অপকর্ম করা হয়েছে।      

পুলিশ জনগণকে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছে। পুলিশের টিম এলাকার লোকজনকে জিজ্ঞাসাবাদও করেছে। পুলিশের এসপি সিটি রাহুল ভাটি বলেছেন,  ওই বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং সিসিটিভি স্ক্যান করা হচ্ছে।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে news