টালা ব্রিজ উদ্বোধন করে মমতা বললেন, উত্তরকে অনেক দিয়েছি


 সব প্রতীক্ষার অবসান। পুজোর আগেই উদ্বোধন হয়ে গেল টালা ব্রিজের (Tala Bridge)। নতুন ব্রিজের উদ্বোধন করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বললেন, উত্তরকে অনেক দিয়েছি।
তৃণমূল কংগ্রেস তথা সরকারে দক্ষিণ কলকাতার আধিপত্য নিয়ে শাসকদলের মধ্যে কম আলোচনা নেই। দক্ষিণের দখলদারি নিয়ে একটা সময় বিদ্রোহ করেছিলেন প্রয়াত সাধন পাণ্ডে। আর শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যাওয়ার পর তো নিয়ম করে বলতেন, সরকারে দক্ষিণ কলকাতার কয়েকটা লোকের মৌরুসিপাট্টা। জেলার লোকেরা কি বানের জলে ভেসে এসেছে।
পুজো উদ্বোধনে গিয়ে ভ্যাটের গন্ধে অতিষ্ঠ মমতা, পাশে তখন সল্টলেকের মেয়র-চেয়ারম্যান
টালা ব্রিজের উদ্বোধন করে মমতা এদিন অতীন ঘোষের উদ্দেশে বলেন, “আগে কথায় কথায় অতীন উত্তর আর দক্ষিণ করত। এখন যখন উত্তরকেকরে দিচ্ছি তখন তো সেটা করো না বাবা!” মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “এটা (পড়ুন টালা ব্রিজ) উত্তর কলকাতার মানুষের কাছে বড় প্রাপ্তি।”

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে টালা ব্রিজ ভাঙার কাজ চালু হয়েছিল। তারপর শুরু হয় নির্মাণের কাজ। মুখ্যমন্ত্রী জানান, পুরো টাকাটাই রাজ্য সরকার দিয়েছে। এদিনের অনুষ্ঠানে ছিলেন রেলের ডিআরএম। মমতা বলেন, ভেবেছিলাম ভাঙার টাকাটা রেল হয়তো নেবে না। কিন্তু সেটা হয়নি।ভাঙার জন্য রেলকে আমাদের ৯০ কোটি টাকা দিতে হয়েছে।  
নতুন ব্রিজের দৈর্ঘ্য ৭৫০মিটার। চিতপুরের দিকের র‍্যাম্পটি ৩০০মিটার। তবে এখনই টালা ব্রিজে ভারী গাড়ি চলাচল করবে না। কিছুদিন দেখে নিয়ে তারপর তা চালু হবে।


খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে news