পুজো উদ্বোধনে গিয়ে ভ্যাটের গন্ধে অতিষ্ঠ মমতা, পাশে তখন সল্টলেকের মেয়র-চেয়ারম্যান

বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রথমে শ্রীভূমি স্পোর্টিংয়ের পুজো উদ্বোধন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। শ্রীভূমি সেরে মমতার দ্বিতীয় গন্তব্য ছিল সল্টলেক এফডি ব্লক (Salt lake FD Block)। কিন্তু গাড়ি থেকে নেমে দিদি যখন মণ্ডপে ঢুকছেন সেই পথে দেখা গেল তিনি দৃশ্যতই বিরক্ত।
মূল মণ্ডপের দিকে হাঁটতে হাঁটতেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “একটা ভ্যাটের গাড়ি দাঁড় করানো রয়েছে। কী গন্ধ (পড়ুন দুর্গন্ধ)!” একথা বলতে বলতেই হাঁটছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।
মমতার পিছনে তখন সুজিত বসু, বিধাননগরের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী, সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার এবং কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান সব্যসাচী দত্ত। মমতার কথা শুনে পাশে হাঁটতে থাকা পুজো উদ্যোক্তাদের একজনের উদ্দেশে সুজিত বলেন, ‘ঢোকার মুখে ভ্যাটের গাড়িটা দাঁড় করানো রয়েছে? কালকে তো সরাতে বলে গেলাম।’ অবাক হয়ে সেই ভদ্রলোক সুজিতের উদ্দেশে প্রশ্ন করেন, ‘এখানে?
সুজিতবাবু রাস্তা যেন বন্ধ না হয়, নইলে ঘ্যাচাং ফু করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি মমতার
সেই শুনে মমতা হাঁটতে হাঁটতে ফের বলেন, ‘হ্যাঁ! কী গন্ধ বাপরে বাপ!’ একথা বলেই দাঁড়িয়ে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী। বাকিরাও থমকে যান। তারপর মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তীর উদ্দেশে বলেন, ‘এটা হবে কেন?’ এরপর আবার মণ্ডপের দিকে হাঁটতে থাকেন মমতা।
মুখ্যমন্ত্রী-সুজিত-কৃষ্ণার এই কথোপকথন পুরোটাই তখন ফেসবুকে লাইভ হচ্ছিল। ফলে মুখ্যমন্ত্রীর কথা আম জনতাও শুনতে পায়।
মুখ্যমন্ত্রী সল্টলেকে ঢুকে ভ্যাটের গন্ধে টিকতে পারছেন না, এই বার্তা স্থানীয় প্রশাসনের জন্য খুব একটা ভাল বার্তা নয় বলেই অনেকে মনে করছেন। এদিন এফডি ব্লকের পুজো উদ্বোধনের আগে সুজিতকেও খোলাখুলি হুঁশিয়ার করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। শ্রীভূমির পুজোর জন্য প্রতিবার লেক টাউনের রাস্তায় যানজট হয়। শুধু তা নয়, দমকল মন্ত্রী তাঁর নিজের পুজোতেই গত বছর নিয়ম ভেঙেছিলেন। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বুঝিয়ে দেন রাস্তা বন্ধ করে পুজো করা যাবে না। তা হলে সেই পুজোকে তিনি কার্নিভালে ঢুকতে দেবেন না।

খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২২/একে news