গণধর্ষণের পর বিবস্ত্র অবস্থায় হেঁটে বাড়ি ফিরল নাবালিকা! দাঁড়িয়ে ভিডিও করল জনতা

অপহরণ (kidnapping) করে গণধর্ষণ (gang rape) করা হয়েছিল কিশোরীকে। কিন্তু সেই সময় ঘটনাস্থলে এসে পড়েন এক গ্রামবাসী। ভয়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। সঙ্গে নিয়ে যায় নাবালিকার (minor) জামাকাপড়। এরপর দু কিলোমিটার রাস্তা বিবস্ত্র এবং রক্তাক্ত অবস্থায় হেঁটে বাড়ি ফিরল কিশোরী। রাস্তা জুড়ে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষজন শুধু যে সেই দৃশ্য চুপচাপ দেখল, তাই-ই নয়, মোবাইলে ভিডিও রেকর্ডও করল সেই দৃশ্য।
বর্বরোচিত ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের (Uttarpradesh) মোরাদাবাদে। জানা গেছে, ঘটনাটি দু-সপ্তাহ আগের। সম্প্রতি নগ্ন অবস্থায় ধর্ষিতা কিশোরীর মোরাদাবাদ-ঠাকুরদ্বারা রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপরেই শোরগোল পড়ে যায় নেটমাধ্যমে। জানা গেছে, ১৫ বছর বয়সি ওই নাবালিকা পাশের গ্রামে একটি মেলা দেখতে গিয়েছিল। সেখান থেকেই তাকে অপহরণ করে ৫ জন দুষ্কৃতী। তারপর তাকে গণধর্ষণ করে তারা। সেই সময় কিশোরীর চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে যান এক গ্রামবাসী। এরপরেই কিশোরীর পোশাক নিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা ।
এরপরেই রক্তাক্ত ও বিবস্ত্র অবস্থায় ২ কিলোমিটার রাস্তা হেঁটে বাড়ি ফেরে নির্যাতিতা নাবালিকা। রাস্তায় তাকে ওই অবস্থায় দেখার পরেও কেউই সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসেনি। উল্টে কেউ কেউ সেই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করে রাখে। পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও আপলোড করে দে তারা।

ঘটনার পর বাড়ি ফিরে সব কথা খুলে বলে নির্যাতিতা। এরপরেই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন কিশোরীর কাকা। যদিও তাঁর অভিযোগ, প্রাথমিকভাবে অভিযোগ পাওয়ার পরেও কোনও পদক্ষেপ নেয়নি পুলিশ। তারপর সরাসরি জেলা পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হন তিনি। এরপর গত ৭ সেপ্টেম্বর এফআইআর নেয় পুলিশ। তিনি জানিয়েছেন, ফোন করে তাঁকে লাগাতার প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে অভিযুক্তরা। সে কথাও উল্লেখ করা হয়েছে এফআইআরে। ইতিমধ্যেই এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।


খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২২/একে news