দুর্গাপুজোর পবিত্রতা নষ্ট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী’, অভিযোগ দিলীপের, পালটা দিল তৃণমূল

মহালয়ার আগেই পুজো উদ্বোধন শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন দেবীপক্ষ শুরুর আগেই উদ্বোধন করলেন তিনি, তা নিয়ে তুঙ্গে বিতর্ক। এবার সেই বিতর্কের রেশ টেনেই মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্গাপুজোর পবিত্রতা নষ্টের অভিযোগে সরব বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। পালটা জবাব দিল তৃণমূল।

সোমবার নিজের সংসদীয় এলাকা খড়গপুরে বসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, “উনি তো আগে থেকেই ঠিক করেছেন টাকা দেব আমার ছবি মণ্ডপে রাখতে হবে। ফিজিক্যালি না হলেও ভারচুয়ালি উদ্বোধন করব। সময় নেই বলে পিতৃপক্ষ থেকে শুরু করেছেন। সব কাজই উলটো করেন। চণ্ডীপাঠও উলটো। টাকা দিয়েছেন তাই উদ্বোধন করতে দিতেই হবে। যেদিন বলছেন তাই সেদিন করতে দিতে হবে। তাই করছেন। দুর্গাপুজোর পবিত্রতা নষ্ট করে দিয়েছেন উনি।”


দিলীপ ঘোষের এই অভিযোগের পালটা জবাব দিয়েছে তৃণমূল। রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, “মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে দিলীপ ঘোষের। দেবীর বোধন তো হয়নি। মণ্ডপ উদ্বোধন হয়েছে। মণ্ডপ উদ্বোধন আর পুজো উদ্বোধন এক নয়। অনেক উদ্যোক্তাই চান মুখ্যমন্ত্রী মণ্ডপ উদ্বোধন করুন। দীর্ঘদিন আগে মমতার কাছে অনুরোধ করেন তাঁরা। পুজোর অনুদানের সঙ্গে উদ্বোধনের কোনও সম্পর্ক নেই।”

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার থেকে পুজো উদ্বোধন শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওইদিন শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের পুজো উদ্বোধন করেন তিনি। তারপর একে একে সল্টলেকের এফডি ব্লক ও টালা পার্ক প্রত্যয়ের পুজো উদ্বোধনও সারেন মুখ্যমন্ত্রী। রবিবার চেতলা অগ্রণীর প্রতিমায় চক্ষুদান করেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “অগ্রণীতে শুধু মায়ের চোখ দর্শন করা নয়। চোখ দর্শনের মধ্যে দিয়ে সারা বাংলাকে দর্শন করার সুযোগ পেলাম।” এছাড়া ওইদিন এক ক্লিকে জেলার ২৬৩টি পুজোর উদ্বোধন করে কার্যত রেকর্ড গড়েন তিনি।
 সংবাদ প্রতিদিন/এনবিএস/২০২২/একে news