বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষকে গ্রেফতার করার দাবি জানালো তৃণমূল কংগ্রেস ভারতের

পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস অবিলম্বে বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি দিলীপ ঘোষ এমপিকে গ্রেফতার দাবি জানিয়েছে। আজ (শনিবার) দলীয় মুখপাত্র ও রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ ওই দাবি জানান।

রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে রাজ্যের সাবেক মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ ধৃত মিডলম্যান প্রসন্ন রায়ের ফ্ল্যাট থেকে বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষের দলিল উদ্ধার হওয়ায় রাজনৈতিক মহলে শোরগোল সৃষ্টি হয়েছে। এনিয়ে অভিযোগ ওঠায় গণমাধ্যমের সামনে প্রসন্নর হাতে দলিল দেওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন বিজেপি নেতা দিলীপ বাবু। ওই দলিল উদ্ধার ইস্যুতে দিলীপ ঘোষকে অবিলম্বে গ্রেফতার করার দাবি তুলে সোচ্চার হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।  

আজ তৃণমূল মুখপাত্র ও রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী এজেন্সি ‘সিবিআই’কে নিশানা করে বলেন, ‘অবিলম্বে দিলীপ ঘোষকে গ্রেফতার করতে হবে। কথায় কথায় যাদের সন্দেহ হচ্ছে, তাদের যদি নোটিশ পাঠিয়ে ডেকে আনা হয়, তাদের গ্রেফতার করা হয়, তাহলে দিলীপ ঘোষকে গ্রেফতার করা হবে না কেন?’  

এপ্রসঙ্গে বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ পাল্টা জবাবে তৃণমূলকে কটাক্ষ করে বলেন,  ‘ওরা ভাবছে সবার যখন লেজ কাটা গেছে, বাকিদেরও লেজ কাটা যাক। আমি তো বলছি আমার বিরুদ্ধে তদন্ত হোক। দেখা যাবে কে ঠিক, কে ভুল। দোষী হলে নিশ্চয় গ্রেফতার করা উচিত আমাকে। হিম্মৎ থাকলে গ্রেফতার করুক, ওদের মতো আমি ছিঁচকে চোর নাকি?’ 

ওই ইস্যুতে তৃণমূল রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘নিয়োগ দুর্নীতিতে ধৃত প্রসন্ন রায়ের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে দিলীপ ঘোষের জমির দলিল পাওয়া গেছে। কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ‘সিবিআই’ তা উদ্ধার করেছে। আদালতে জমা দিল। কিন্তু প্রথমে সিজার লিস্ট গোপন করার চেষ্টা হয়েছে। আদালতে বিষয়টা ওঠার পর তখন সেই সিজার লিস্ট দিতে বাধ্য হয়েছে সিবিআই। যার বিরুদ্ধে বিজেপির এত অভিযোগ সেখানে দিলীপ ঘোষের দলিল? প্রসন্ন রায়ের বাড়িতে কী করে যায় দলিল? আমরা লক্ষ্য করলাম সিজার লিস্টে উঠে আসার পর সেটা গোপন করা হয়েছে। আদালতে বলার পর তা দেখানো হয়েছে। সেজন্য অবিলম্বে দিলীপ ঘোষকে গ্রেফতার করতে হবে।
খবর পার্সটুডে /এনবিএস/২০২২/একে

news