তানজানিয়া থেকে অভিনব কায়দায় সোনা পাচারের ছক, বিমানবন্দরে উদ্ধার ৬১ কেজি!

 মুম্বইয়ের (Mumbai) ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ বিমানবন্দরে একদিনে এত সোনা (Gold) আগে উদ্ধার হয়নি। পাচারের কৌশলও ছিল অভিনব। যা দেখে চমকে গিয়েছেন শুল্ক দপ্তরের আধিকারিকরা (Customs Officials)। রবিবার দু’টি আলাদা ঘটনায় ৬১ কেজি সোনা বাজেয়াপ্ত করেন তাঁরা। যার বাজারদর ৩২ কোটি টাকা। ভারতে সোনা পাচারের (Gold Smuggling) অভিযোগে পাঁচ মহিলা-সহ ৭ যাত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বই পুলিশ (Mumbai Police)।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা গিয়েছে, সাত অভিযুক্তের মধ্যে চার জন ভারতীয়। তারা তানজানিয়া থেকে ফিরছিলেন। তাদের কাছে ১ কেজি ওজনের একাধিক ‘গোল্ড বার’ (Gold Bar) ছিল। মোট ৫৩ কেজি সোনা উদ্ধার হয়। যার আনুমানিক মূল্য ২৮ কোটি ১৭ লক্ষ টাকা। সোনা পাচারের জন্য অভিনব পন্থা নেন অভিযুক্তরা। এর জন্য বিশেষ বেল্ট তৈরি করেন তারা। পাচারের অভিনব পন্থা দেখে অবাক হন শুল্ক দপ্তরের আধিকারিকরা।

ধৃতদের দাবি, দোহা বিমানবন্দরে (Doha Airport) সুদানের এক নাগরিক তাঁদের সোনার বার লাগানো ওই বেল্টগুলি দেয়। ধৃতদের বক্তব্যের সত্যতা যাচাই করে দেখছে পুলিশ। এদিকে পাচারের অভিযুক্তদের এদিনই আদালতে তোলে পুলিশ। তাদের ১৪ দিনের জেল হেফাজত দিয়েছে পুলিশ।

এদিকে অন্য একটি ঘটনায় ৮ কেজি সোনা উদ্ধার করেছে বিমানবন্দরের শুল্ক দপ্তরের আধিকারিকরা। যার বাজারদর ৩ কোটি ৮৮ লক্ষ টাকা। দুবাই (Dubai) থেকে আসা দুই মহলা-সহ ৩ জন যাত্রীর কাছে ছিল ওই সোনা। তাদেরও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাজেয়াপ্ত হয়েছে সোনা। একদিনে এত সোনা উদ্ধারে চাঞ্চল্য ছড়ায় মুম্বইয়ের ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ বিমানবন্দরে।

সংবাদ প্রতিদিন/এনবিএস/২০২২/একে

news