SFI-এর সভায় ‘বাধা’, TMCP সমর্থকদের সঙ্গে তুমুল বচসা-হাতাহাতি, উত্তাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

স্থায়ী উপাচার্যের নিয়োগ-সহ একাধিক দাবিতে আয়োজিত এসএফআইয়ের সভায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে। তাতেই তুমুল উত্তেজনা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে। হাতাহাতিতে জড়াল SFI-TMCP। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ময়দানে নামে পুলিশ। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় পরিস্থিতি আয়ত্তে এলেও এখনও থমথমে ক্যাম্পাস।

স্থায়ী উপাচার্য নিয়োগ, ইউজিসির (UGC) সংবিধান বিরোধী গাইড লাইন প্রত্যাহারের দাবি, সমস্ত খালি সিট এর তালিকা প্রকাশ করে অবিলম্বে ভরতি প্রক্রিয়া শেষ-সহ একাধিক দাবিতে মঙ্গলবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে সভার আয়োজন করে এসএফআই। তাঁদের অভিযোগ, এদিন তাঁদের সভায় বাধা দেয় টিএমসিপি। এরপরই দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে শুরু হয় বচসা। ক্রমেই তা চরমে ওঠে। বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল গেটের কাছে চলে আসে এসএফআই ও টিএমসিপি। হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দুই দলের সমর্থকরা। যার জেরে বেশ কিছুক্ষণের জন্য অবরুদ্ধ হয়ে যায় কলেজস্ট্রিট চত্বর।


খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। সেখানে পুলিশ সামনেও চলে স্লোগান-পালটা স্লোগান। ট্রাম লাইনে বসে পড়েন এসএফআই সমর্থকরা। তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। টিএমসিপির অভিযোগ, সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) নামে আপত্তিকর মন্তব্য করা হয়েছিল। তারই প্রতিবাদ করা হয়। এদিকে এসএফআইয়ের দাবি, তাঁদের সভায় বাধা দেওয়ার পাশাপাশি কর্মীদের মারধরও করেছে।

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের আরও অভিযোগ, বহিরাগতদের নিয়ে ক্যাম্পাসের ভিতরে অশান্তি ছড়িয়েছে এসএফআই। যদিও এ দাবি মানতে নারাজ এসএফআই।
খবর সংবাদ প্রতিদিন /এনবিএস/২০২২/একে news