ইমরান ও তার স্ত্রীসহ ২২৬ পিটিআই নেতার দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান এজন্য সরকারকে ধন্যবাদ দিয়ে শুক্রবার বলেছেন, তার বিদেশে চলে যাওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই।

তার একদিন আগে ইমরান খান ও তার স্ত্রীসহ পিটিআই নেতাদের এফআইএ’র প্রভিশনাল ন্যাশনাল আইডেনটিফিকেশন লিস্টে (পিএনআইএল) নাম যুক্ত করে দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। বিশেষ করে যারা ৯ মে’র ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত, যারা সরকারি ও বেসরকারি ও সশস্ত্র বাহিনীর সম্পদ নষ্ট করেছেন, তারা কোনো ক্রমেই দেশ ত্যাগ করতে পারবেন না।

পিটিআই প্রধান টুইটারে লিখেছেন, ‘আমার নাম এক্সিট কন্ট্রোল লিস্টে (ইসিএল) রাখার জন্য সরকারকে ধন্যবাদ। কারণ আমার বিদেশ যাওয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই।’

বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের বিশেষ সহকারী আতাউল্লাহর বরাত দিয়ে একাধিক পাকিস্তানি গণমাধ্যম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

আতাউল্লাহ বলেন, ‘পিটিআই নেতাদের মধ্যে তালিকায় রয়েছেন আসাদ উমর, মালেকা বোখারি, কাসিম সুরি, আসাদ কায়সার, মুরাদ সাঈদ, হাম্মাদ আজহার, ইয়াসমিন রশিদ ও আসলাম ইকবাল।’ তিনি বলেন, ‘ইমরান খান ও বুশরা বিবিসহ এসব নেতাকে নো ফ্লাই তালিকায় এক্সিট কন্ট্রোল লিস্টে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।’
 
শাহবাজ শরিফের এ বিশেষ সহকারী আরও বলেন, ‘পিটিআই নেতাদের এই তালিকা দেশ থেকে বাইরে যাওয়ার সব পয়েন্ট ও বিমানবন্দরে পাঠানো হয়েছে।’

সম্প্রতি পিটিআইয়ের একাধিক নেতা দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। এর মধ্যে দলটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী, শিরীন মাজারি, মালেকা বোখারি অন্যতম। বুধবার ফাওয়াদ চৌধুরী দল ছাড়ার ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে দলের মহাসচিব আসাদ উমর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। তবে তিনি পিটিআই সদস্য থাকবেন বলে জানিয়েছেন।

এনবিএস/ওডে/সি

news