ডেটে না গিয়ে টাকা জমাতেন যুগল, কুড়িতেই কিনলেন ২ কোটির বাড়ি!

 করোনাকালীন (Covid lockdown) লকডাউনে ঘরে (Home) আটকে থাকাটা অসহ্য হয়ে উঠেছিল সকলের কাছে। নিজেদের অভ্যস্ত ছকের বাইরে গিয়ে ঘরটাকেই জীবন বানিয়ে নিতে হয়েছিল। রেস্তোরাঁ থেকে শুরু করে সিনেমা হল, ক্লাব, বিউটি পার্লার সবই যখন বন্ধ; তখন বিনোদন খোঁজার চেষ্টা করতে হয়েছে বাড়িতেই।  

তবে এই লকডাউনে আর যায় হোক, সবাই পরিবারকে অনেক বেশি সময় দিতে পেরেছে। আর তার সঙ্গে সঙ্গে বিলাসিতার জন্য খরচ করা টাকাও বেঁচে গিয়েছে। সেই টাকা বাঁচিয়েই ২.২২ কোটি টাকার বাড়ি কিনে ফেলেছেন এক অল্প বয়সি দম্পতি।

ব্রিটেনের উইলটশায়ারের বাসিন্দা অলিভিয়া ও জ্যাক। তাঁরা জানিয়েছেন, লকডাউনে সব সুযোগ সুবিধা বন্ধ থাকায় তাঁদের রেস্তোরাঁয় খাওয়া বদলে যায় ঘরের খাবারে, ক্লাবের বিলাসবহুল রাতগুলো কাটত পার্কে হেঁটে হেঁটেই। তাই তাঁদের বিলাসিতার জন্য প্রায় কিছুই খরচ হয়নি। সব টাকাই জমতে শুরু করে। আর এভাবেই টাকা জমিয়ে বাড়ি কেনার নেশায় মেতে ওঠেন দম্পতি। এরপর যখন লকডাউন উঠে যায় তখনও তাঁরা তাঁদের সাধারণ জীবনই কাটাতে থাকেন। লকডাউন শেষে তাঁদের কাছে জমে যায় ১১.৫ লাখ টাকা।

নিজেদের জমানো টাকা এবং সরকারি হোমলোনের সুবিধা নিয়ে যুগল কিনে ফেলেন তাঁদের সাধের বাড়ি। অলিভিয়া পেশায় সরকারি কর্মচারী এবং তাঁর সঙ্গী জ্যাক ছুতোর মিস্ত্রি। তাঁদের টাকা জমাতে শিখিয়েছে এই লকডাউন। বিলাসিতার কিছু ছোট ছোট দিক বাদ দিতে পারলেই যে সঞ্চয়ের পরিমাণ বাড়ানো সম্ভব তার প্রমাণ অলিভয়া ও জ্যাক। নিজেদের কষ্ট করে জমানো টাকাতেই তাঁরা তাঁদের স্বপ্ন ছুঁতে পেরেছেন।।খবর পার্সটুড/এনবিএস/২০২২/একে news