প্রতিবেশী থাইল্যান্ডের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া চালাবে চীন

প্রতিবেশী থাইল্যান্ডের সঙ্গে আগামীকাল (রোববার) থেকে যৌথভাবে সামরিক মহড়া চালাবে চীন। এজন্য এরইমধ্যে চীনা জঙ্গিবিমান, বোমারু বিমান এবং আর্লি ওয়ার্নিং এয়ারক্রাফট থাইল্যান্ডে পাঠানো হয়েছে। চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আজ এ কথা জানিয়েছে।

চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ফ্যালকন স্ট্রাইক ২০২০ নামে এই সামরিক মহড়া রাজকীয় থাই বিমান বাহিনীর উত্তরাঞ্চলীয় ঘাঁটিতে অনুষ্ঠিত হবে। ঘাঁটিটি লাওস সীমান্তের কাছে অবস্থিত।

মহড়ায় যে সমস্ত অনুশীলন করা হবে তার মধ্যে থাকবে এয়ার সাপোর্ট, ভূমিভিত্তিক লক্ষ্যবস্তুর ওপর হামলা এবং ক্ষুদ্র ও বৃহদাকারের সেনা মোতায়েন।

এই সামরিক মহড়ার লক্ষ্য হচ্ছে পারস্পরিক আস্থা বাড়ানো এবং দুই দেশের মধ্যকার বিমানবাহিনীর বন্ধুত্ব জোরদার করা। পাশাপাশি দ্বিপক্ষীয় বাস্তব সহযোগিতা গভীর এবং চীন-থাইল্যান্ড পূর্ণাঙ্গ কৌশলগত সহযোগিতামূলক অংশীদারিত্ব অব্যাহত রাখা।

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফর করার পর যখন ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে প্রচণ্ড রকমের উত্তেজনা চলছে তখন এই মহড়ার আয়োজন করা হলো।

এর আগে, ন্যান্সি পেলোসির সফর শেষ হওয়ার সাথে সাথে তাইওয়ানের চারপাশ জুড়ে অন্তত ছয়টি অঞ্চলে বিশাল সামরিক মহড়া চালায় চীন ।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২২/একে news